অপরাধীদের চরিত্র সংশোধন করে পুর্নবাসনে পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে – কারা মহাপরিদর্শক

আপডেট: মে ১২, ২০১৯
0
ক্যাপশন ঃ গাজীপুরে কাশিমপুর কারা কমপ্লেক্সে ১১তম ডেপুটি জেলার ও ৫৫তম কারারক্ষী বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠাণে কারা মহাপরিদর্শক

১১তম ডেপুটি জেলার ও ৫৫তম কারারক্ষী বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ সমাপনী অনুষ্ঠান  

গাজীপুর সংবাদদাতাঃ কারা মহাপরিদর্শক এ কে এম মোস্তফা কামাল পাশা বলেছন,কারাগারে নিরাপত্তা বিধানের পাশাপাশি বন্দিদের প্রতি মানবিক আচরণ প্রদর্শন ও প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে অপরাধীদের চরিত্র সংশোধন করে সমাজে পুর্নবাসনের লক্ষ্যে ইতোমধ্যেই নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। এ ধরণের উদ্যোগকে সফল করতে কারা কর্মকর্তা কর্মচারীদের দক্ষতা বৃদ্ধি এবং যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলার জন্য যুগপোযোগী প্রশিক্ষণ প্রদান খুবই গুরুত্বপূর্ণ।


ক্যাপশন ঃ গাজীপুরে কাশিমপুর কারা কমপ্লেক্সে ১১তম ডেপুটি জেলার ও ৫৫তম কারারক্ষী বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠাণে কারা মহাপরিদর্শক

তিনি বলেন, জঙ্গি ও শীর্ষ সন্ত্রাসীরা যাতে কারাভ্যন্তর হতে কোনরূপ সমাজ ও রাষ্ট্র বিরোধী তৎপরতা চালাতে না পারে সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। শৃংখলা ও মানবিকতাকে প্রাধান্য দিয়ে অনিয়ম ও দুর্নীতিকে প্রতিরোধ করতে হবে। কারাভ্যন্ত‌রে যাতে কোনভা‌বেই কারাবি‌ধি ব‌হির্ভূত নি‌ষিদ্ধ দ্রব্য প্রবেশ কর‌তে না পা‌রে সে‌দি‌কে কারা কর্মকর্তা ও কারারক্ষী‌দের সর্বদা সজাগ দৃ‌ষ্টি রাখ‌তে হ‌বে।

রবিবার গাজীপুরে কাশিমপুর কারা কমপ্লেক্সের প্যারেড গ্রাউন্ডে ১১তম ডেপুটি জেলার ও ৫৫তম কারারক্ষী বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে কারা মহাপরিদর্শক ওইসব কথা বলেন। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত কারা মহাপরিদর্শক কর্নেল মো. আবরার হোসেন।

প্রধান অতিথি আরো বলেন, বন্দিদের কল্যাণে রমজান মাস হতে বন্দিদের ইফতারিতে বরাদ্ধের পরিমাণ ১৫ টাকা হতে বৃদ্ধি করে ৩০ টাকা করা হয়েছে। সকালের নাস্তা, রুট ও গুড়ের পরিবর্তে সপ্তাহে ২ দিন খিচুরী, ১ দিন হালুয়া-রুটি ও ৪দিন জব্জি-রুটি সরবরাহ করা হবে। বন্দিদের মাঝে সরবরাহকৃত ৩টি কম্বলের মধ্যে ১টি কম্বলের পরিবর্তে প্রতিজন বন্দিকে ১টি করে বালিশ সরবরাহ করা শুরু হয়েছে। চলতি বছর কারাগারের ধারণ ক্ষমতা ৩৬ হাজার হতে ৪০ হাজার ৬৬৪ তে উন্নীত করা হয়েছে। এ ছাড়া ১৬টির স্থলে বর্তমানে ৩৮টি ট্রেডে ২৯ হাজার ৬৭৩ জন বন্দিদের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।

তিনি ব‌লেন- কারাগারে ব‌ন্দি শ্র‌মে উৎপা‌দিত প‌ণ্যের আ‌য়ের অ‌র্ধেক ব‌ন্দি‌কে প্রদানের কাজ শুরু হ‌য়ে‌ছে। ব‌ন্দি‌দের দ্বারা প্রস্তুতকৃত হস্ত‌শিল্পজাত সামগ্রী প্রদর্শন ও বিক্রয়ের উ‌দ্দে‌শ্যে কা‌শিমপুর কারা প্রাঙ্গনে কেন্দ্রীয় বিক্রয় ও প্রদর্শণী কেন্দ্র ছাড়াও সারা‌দে‌শের বি‌ভিন্ন কারাগা‌রে বিক্রয় ও প্রদর্শনী কেন্দ্র র‌য়ে‌ছে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে কারা উপ-মহাপরিদর্শক মো. বজলুর রশীদ, কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার ১ ও ২ এর সিনিয়র জেল সুপার সুব্রত কুমার বালা, কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি ও মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার শাহজাহান আহেমদ, কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার বিকাশ রায়হান ও কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার ২ এর জেলার তারিকুল ইসলামসহ কারা কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলন।

কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-১ ও ২ এর সিনিয়র জেল সুপার সুব্রত কুমার বালা জানান, ১১তম ডেপুটি জেলার বুনিয়াদি প্রশিক্ষণে ২৬ জন পুরুষ ও ২৬ জন মহিলাসহ মোট ৫২জন ডেপুটি জেলার এবং ৫৫তম কারারক্ষী বুনিয়াদি প্রশিক্ষণে ৩২২ জন পুরুষ কারারক্ষী প্রশিক্ষণার্থী অংশগ্রহণ করেন।

LEAVE A REPLY