অস্ট্রেলিয়াকে ২৮১ রানের টার্গেট দিল পাকিস্তান

আপডেট: মার্চ ২২, ২০১৯
0

সংযুক্ত আরব আমিরাতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে আগে ব্যাট করে হারিস সোহেলের সেঞ্চুরিতে চ্যালেঞ্জিং স্কোর পেয়েছে পাকিস্তান। যদিও এক পর্যায়ে রানের পাহাড় গড়ার আভাস দিয়েছিল দলটি; কিন্তু শেষ দিকে দ্রুত রান তুলে ব্যর্থ হওয়ায় নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৫ উইকেটে ২৮০ রানে থামতে হয়েছে তাদের।

অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদসহ বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়কে বিশ্রামে রেখে মরুর বুকে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ খেলতে নেমেছে পাকিস্তান। এটি তাদের প্রায় দ্বিতীয় সাড়ির দল বলা যায়। সরফরাজ ছাড়াও ফখর জামান, হাসান আলী, শাদাব খান, মোহাম্মদ হাফিজের মতো নিয়মিত খেলোযাড়দের বিশ্রামে রেখেছে পাকিস্তান।

শুক্রবার টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন পাকিস্তানের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক শোয়েব মালিক।

বিশ্রামে থাকা ফখর জামানের জায়গায় ইমাম উল হকের সাথে ইনিংস ওপেন করেছেন শান মাসুদ। ইমাম ১৭ ও মাসুদ ৪০ করে আউট হলে ইনিংসের হাল ধরেন অনেকদিন পর দলে ফেরা ওমর আকমল ও হারিস সোহেল।

৭৮ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারানোর পর এই জুটি পাকিস্তানকে এনে দেয় বড় একটি পার্টনারশীপ। দলীয় ১৭৬ রানের সময় ব্যক্তিগত ৪৯ রানে বিদায় নেন ওমর আকমল।

শেষ হয় হারিস সোহেলের সাথে তার ৯৮ রানের জুটি। ৩৮তম ওভারের দ্বিতীয় বলে কাল্টার নাইলের একটি শর্টপিচ বলে উড়িয়ে মারতে গিয়ে অ্যারন ফিঞ্চের তালুবন্দী হন ওমর আকমল। তার সাথে যোগ দিয়েছেন শোয়েব মালিক। তবে তিনিও ক্রিজে এসে স্থায়ী হতে পারেননি। ম্যাক্সওয়েলের এক ওভারে এক ছক্কা ও এক চার মেরে ৩৯তম শেষ বলে আউট হয়ে যান।

এরপর ক্রিজে আসা ফাহিম আশরাফও ২৯ রান করে আউট হয়ে যান। তবে একপ্রান্তে অনড় ছিলেন বামহাতি মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান হারিস সোহেল।

ইনিংসের শেষ ওভারে তিনি তুলে নিয়েছেন ব্যক্তিগত ক্যারিয়ারের প্রথম ওয়াডে সেঞ্চুরি। ১১৪ বলে তিনি তুলে নেন সেঞ্চুরি।

১০১ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি শেষ পর্যন্ত। অন্য প্রান্তে ৯ বলে ১৫ রান করে অপরাজিত ছিলেন ইমাদ ওয়াসিম।

অস্ট্রেলিয়ার বোলাদের মধ্যে কাল্টার নাইল ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েল দুটি করে উইকেট নিয়েছেন।

 

LEAVE A REPLY