আজিজুল বারী হেলাল কারাগারে : `বিএনপি নেতাকর্মীদের আটক করে জেলখানা পূর্ণ করছে’

আপডেট: নভেম্বর ২৫, ২০১৯
0
file photo

বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির তথ্য বিষয়ক সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল আজ মিথ্যা ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলায় আদালতে হাজিরা দিতে গেলে তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, “সরকারের এখন টিকে থাকার উপায় বিএনপি নেতাকর্মীদের পাইকারী হারে গ্রেফতার। সরকার এখন খুব জোরে সোরে বিএনপি’র নেতাকর্মীদের আটক করে জেলখানা পূর্ণ করছে। আইন আদালতেও কোন প্রতিকার পাওয়া যায় না।

আইন আদালতকে কব্জায় নিয়ে বিএনপি’র নেতাকর্মীদের সুবিচার থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে। রকারের হুকুমেই বিচার, আদালতের কার্যক্রম চলে বলেই জামিনে থাকা আজিজুল বারী হেলাল এর ঠিকানা হয়েছে কারাগারে।
হীরক রাজার রাজত্বের মতো শাসন চলছে বলেই বাংলাদেশে আইনের শাসন ও সুষ্ঠু বিচার ব্যবস্থা তিরোহিত হয়ে গেছে।

নির্যাতন নিপীড়ণের মাধ্যমে দেশবাসীসহ বিএনপি ও বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের আতঙ্কিত ও ভীত-সন্ত্রস্ত করে বর্তমান শাসকগোষ্ঠী ভয়ঙ্কর দু:শাসন কায়েম রেখেছে।

দেশকে এখন পুরোপুরি বৃহত্তর কারাগার বানানো হয়েছে। বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে প্রতিহিংসামূলক অসত্য মামলা দায়েরের মাধ্যমে মিথ্যা মামলায় গ্রেফতার ও নির্যাতন নিপীড়ণ চালানোর উদ্দেশ্যই হচ্ছে বিএনপি-কে ধ্বংস করে প্রতিবাদী আওয়াজকে নিস্তব্ধ করা, যাতে অপশাসন দীর্ঘায়িত হয়।

আজিজুল বারী হেলাল সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী কন্ঠস্বর বলেই তাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে বিপর্যস্ত করতেই তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
তাকে কারাগারে প্রেরণ বর্তমান সরকারের হিংসাশ্রয়ী রাজনীতির আরেকটি জঘন্য বহি:প্রকাশ।
তবে হত্যা-বিচারবহির্ভূত হত্যা-গুম-অপহরণ-মিথ্যা মামলা দায়ের করে গ্রেফতার ও কারারুদ্ধ করার মাধ্যমে দমন-পীড়ণ চালিয়ে দেশের বৃহত্তম বিরোধী দল বিএনপি-কে নিশ্চিহ্ন করে বাংলাদেশে একদলীয় শাসন প্রতিষ্ঠার আকাঙ্খা এদেশের গণতন্ত্রমণা ও স্বাধীনতাকামী জনগণ কখনোই বাস্তবায়িত হতে দেবেনা।

জনগণ এখন ঐক্যবদ্ধ, যেকোন মূহুর্তে জনগণের প্রবল স্রোত সরকারের পতন ঘটিয়ে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনবেই।”
বিএনপি মহাসচিব অবিলম্বে বিএনপি’র জাতীয় নির্বাহী কমিটির তথ্য বিষয়ক সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল এর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত বানোয়াট মামলা প্রত্যাহার ও নি:শর্ত মুক্তির জোর দাবি জানান।

LEAVE A REPLY