‘এফবিআই-ইন্টারপোলের তদন্তে তারেক রহমানের নাম ছিল না’

আপডেট: অক্টোবর ১২, ২০১৮

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ দলটির বেশ কয়েকজন নেতাকর্মীকে দোষী সাব্যস্ত করে সাজা দেয়া হয়েছে।

কিন্তু এই হামলার দায় নিতে রাজি নয় বিএনপি।

বুধবারই এক সংবাদ সম্মেলনে এই মামলার রায়কে ‘রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’ বলে দাবি করেছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, বিএনপি মনে করে এ রায় রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

২১ আগস্ট সেই নৃশংস ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে তৎকালীন বিএনপি সরকারই সেই সময় প্রকৃত অপরাধীদের শাস্তি দেয়ার জন্য মামলা দায়ের করেছে।

স্থানীয় তদন্ত সংস্থার পাশাপাশি এফবিআই এবং ইন্টারপোলকে সম্পৃক্ত করেছে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ বলেছেন, মামলায় তারেক রহমানকে জড়ানোর কারণে মামলায় রায়টি প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, কারণ তারেক রহমানের বিরুদ্ধে কোনো সাক্ষ্যপ্রমাণ নেই, কিন্তু তারপরেও তাকে সাজা দেয়া হয়েছে।

আর ২০০৯ সালের পরে কী হয়েছে সেটা দেখতে হবে।

তার আগে এফবিআই এবং ইন্টারপোল তদন্ত করেছে, তাদের কোনো প্রতিবেদনে তো তারেক রহমানের নাম আসেনি।

উল্লেখ্য, ১৪ বছরের বেশি সময় পরে একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় হয়েছে বুধবার।
রায়ে তৎকালীন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর এবং আব্দুস সালাম পিন্টুসহ ১৯ জনকে মৃত্যুদণ্ড, এবং বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও হারিছ চৌধুরীসহ ১৯ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।