কোটা বাতিল নয়, যৌক্তিক সংস্কার করতে হবে: কোটা আন্দোলনকারীরা

আপডেট: অক্টোবর ৭, ২০১৮

কোটা বাতিল ও পরিপত্র জারির প্রেক্ষিতে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক বলেছেন, আমরা কখনও কোটা বাতিল চাইনি।

তাই কোটা বাতিলের কারণে উদ্ভূত সমস্যার দায়ভার সরকারকেই নিতে হবে। একই সঙ্গে তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির সরকারি চাকরিতেও কোটার যৌক্তিক সংস্কার করতে হবে।

রোববার সকাল ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরীর সামনে এক মানববন্ধনে এ কথা বলেন।

সংগঠনটির আহ্বায়ক হাসান আল মামুন বলেন, বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ গতক ১৩ ফেব্র“য়ারি থেকে সকল সরকারি চাকরিতে ৫ দফার আলোকে কোটা পদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করেছে।

আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে সরকার কোটা সংস্কার না করে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির চাকরিতে কোটা বাতিল করে পরিপত্র জারি করেছে।

আমরা সকল সাধারণ ছাত্র সমাজের প্রতিনিধিত্ব করি। তাই আমরা সবসময় ৫ দফার আলোকে কোটা পদ্ধতির সংস্কার চেয়েছি, কখনও কোটা বাতিল চাইনি।