গাজীপুরের সাফারী পার্কে ঠাঁই হয়েছে বিমান বন্দর হতে উদ্ধারকৃত পাখি ও প্রাণীগুলোর

আপডেট: আগস্ট ৭, ২০১৮
ক্যাপশনঃ গাজীপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্কে হস্তান্তরকৃত বন্য প্রাণী ও পাখি।

গাজীপুর সংবাদদাতাঃ হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে উদ্ধার হওয়া বন্য পাখি ও প্রাণীগুলোর অবশেষে ঠাঁই হয়েছে গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্কে।

dav

বন্যপ্রাণী পরিদর্শক অসিম কুমার মল্লিক জানান, রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে গত সোমবার রাতে লাভবার্ড, কাকাতুয়া ময়ুর, কমন লেমুর, ম্যাকাওসহ ২০২ জোড়া বিপন্ন প্রায় পাখি ও বন্যপ্রাণী উদ্ধার করে শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগ ও ঢাকা কাস্টমস্ হাউস কর্তৃপক্ষ বণ্যপ্রাণী অপরাধ দমন বিভাগের কাছে হস্তান্তর করে। উদ্ধার হওয়া এসব পাখি ও প্রাণীগুলোকে বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন বিভাগ মঙ্গলবার গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্ক কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করে।

পার্কের বণ্যপ্রাণী পরিদর্শক আনিছুর রহমান জানান, উদ্ধারকৃত প্রাণীগুলোর মধ্যে ১২টি কমন মার মুসেট মানকি, ২০টি কমন লেমুর, ১৫টি ম্যাকাও, ৮টি ময়ুর, ৩০টি আফ্রিকান গ্রে-প্যারেট, ৪টি কাকাতুয়া ও ১৫০টি লাভ বার্ড রয়েছে। এরমধ্যে ১টি গ্রে প্যারেট মৃত অবস্থায় ছিল। পাখিগুলোর মধ্যে কয়েকটি লাভ বার্ড পাখি মারা গেছে। অবশিষ্ট জীবিত প্রাণী ও পাখিগুলোকে টিকিয়ে রাখার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম জানান, দীর্ঘপথ অতিক্রম করে বাংলাদেশে আসা প্রাণীগুলো শারীরিক ভাবে অনেকটা দুর্বল। সাফারী পার্কে হস্তান্তর করার পর প্রাণীগুলোকে নির্দিষ্ট কোরেন্টাইনে (পৃথক স্থান) রাখা হয়েছে। উদ্ধারকৃত প্রাণীগুলোর আনুমানিক মূল্য প্রায় অর্ধকোটি টাকা।