গ্রেনেড হামলা মামলার রায় প্রত্যাখ্যান করে খুলনা জেলা বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ

আপডেট: অক্টোবর ১১, ২০১৮

খুলনা সংবাদদাতাঃ
২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলা মামলার ফরমায়েশি রায় প্রত্যাখ্যান করে খুলনা জেলা বিএনপির সভাপতি এ্যাড. এস এম শফিকুল আলম মনা বলেছেন, এ রায় উদ্দেশ্য প্রণোদিত এবং রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতে অনির্বাচিত সরকার আদালকে ব্যবহার করে আরেকটি ন্যাক্কারজনক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। রাজনৈতিক কর্মসূচি পালন এবং আইনী প্রক্রিয়ার মাধ্যমে এ রায়ের মোকাবেলা করা হবে বলে ঘোষণা দেন তিনি। সরকার ক্ষমতায় থাকার জন্য বিএনপির বিরুদ্ধে নানা ষড়যন্ত্র করছে দাবি করে তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে জেলে রেখে, তারেক রহমানকে দেশে ফিরতে না দিয়ে এবং হাজার হাজার নেতাকর্মীকে জেলে রেখে এক তরফা নির্বাচনের খায়েস তাদের পূরণ হবেনা।
ষড়যন্ত্রমূলকভাবে দেশনায়ক তারেক রহমানসহ বিএনপির নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে ফরমায়েশি আদালতের রায়ের প্রতিবাদে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী ১১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় কে ডি ঘোষ রোডে দলীয় কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
সভায় উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক আমীর এজাজ খান, খান জুলফিকার আলী জুলু, মনিরুজ্জামান মন্টু, শেখ আব্দুর রশিদ, কামরুজ্জামান টুকু, আশরাফুল আলম নান্নু, চৌধুরী কওসার আলী, খান আলী মুনসুর, মেজবাউল আলম, আবুল খয়ের খান, মোল্লা খায়রুল ইসলাম, মোস্তফা উল বারী লাভলু, এ্যাড. মাসুম আল রশিদ, এ্যাড. তছলিমা খাতুন ছন্দা, শামসুল আলম পিন্টু, ওয়াইহদুজ্জামান রানা, শামীম কবির, তৈয়েবুর রহমান, ইবাদুল হক রুবায়েদ, উজ্জল কুমার সাহা, ইলিয়াস মল্লিক, আতাউর রহমান রনু, আব্দুল মান্নান মিস্ত্রি, গোলাম মোস্তফা তুহিন, আহসানুল হক লড্ডন, সুলতান মাহমুদ, খায়রুল ইসলাম খান জনি, মোল্লা মোশারফ হোসেন মফিজ, মোল্লা সাইফুর রহমান, খন্দকার ফারুক হোসেন, জাফরী নেওয়াজ চন্দন, কাজী মিজানুর রহমান, সাইফুল হাসান রবি, কাজী ওয়াইজউদ্দিন সান্টু, আরিফুর রহমান আরিফ, গোলাম কিবরিয়া আশা, মনির হোসেন, শেখ আব্দুস সালাম, রফিকুল ইসলাম বাবু, জসিমউদ্দিন লাবু, শামসুল বারিক পান্না, রাহাত আলী লাচ্চু, ডাঃ আলমগীর হোসেন, তারভিরুল আযম রুম্মান, শাহানুর রহমান আরজু, শাহাদাত হোসেন ডাবলু, আজিজুল ইসলাম, পূর্ণিমা হোসেন, আসলাম পারভেজ, বিকাশ মিত্র, জাকির গাজী, মোল্লা বিল্লাল হোসেন, মনিরুজ্জামান মনি, মোল্লা মাহবুবুর রহমান, ফখরুল ইসলাম বুলু, জহুরুল হক, ইসমাইল হোসেন, আবু হানিফ, হারুনর রশিদ, এ্যাড. সেতারা সুলতানা, মনি বেগম, মনিরা সুলতানা, জাকির হোসেন, মোফাজ্জেল হোসেন মফু, আব্দুল মালেক, মোকাররম হোসেন, জহুর আকুঞ্জি, আবু তাহের পাঠান, মহিউদ্দিন মিন্টু, হায়দার আলী, এ্যাড. নান্নু, দিদারুল ইসলাম, হাবিবুর রহমান হাবিব, সাইফুল মোড়ল, সাইফুল পাইক, শহিদুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম বাচ্চু, আব্দুর রব আকুঞ্জি, শহিদুল ইসলাম ছোট্ট, মিজানুর রহমান খোকন, মোস্তাফিজুর রহমান, মোস্তাকিন বিল্লাহ প্রমুখ।