চট্টগ্রামে ছাত্রদল নেতাদের উপর আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হামলার তীব্র নিন্দা 

আপডেট: নভেম্বর ৩, ২০১৯
0

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ জেলা বিএনপির উদ্যোগে নাসিমন ভবনস্থ দলীয় কার্যালয়ে প্রাথমিক সদস্য সংগ্রহ ও তথ্য পর্যবেক্ষণ সভায় চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদল সভাপতি গাজী সিরাজ উল্লার নেতৃত্বে গতকাল বেলা ৩.৩০টা দিকে মিছিল নিয়ে যাওয়ার সময় এস.এ পরিবহণ এর সামনে গেলে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী বিনা কারনে হামলা চালায়।

হামলায় গুরুতর আহত হন ছাত্রদল নেতা মামুন খানশফিকুর রহমান স্বপনআলীফ উদ্দীন রুবেলসামিয়াত জিশানসৌরভ প্রিয় পালআব্দুল কাদেরগাজী শওকতমাহমুদুর রহমান বাবুকাইয়ুমুর রশিদ বাবু. আজমাউল হাসান শাজানেওয়াজ শাওনমুজিবুর রহমানমোঃ আজমূলমোঃ রাসেলমোঃ রুবেলরিদুয়ান ইসলামমোঃ রনিফয়জুল্লাহ হক রুবেলআবুল কাশেম খান সহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়।

এই ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল।

আজ এক বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেনসরকারের অন্যায় অত্যাচার আর দুঃশাসনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী তরুণ নেতৃত্ব ধ্বংস করতেই ভোটারবিহীন সরকার ছাত্রদল নেতা-কর্মীদের উপর হামলা ও গ্রেফতার অব্যহত রেখেছে। ছাত্র-জনতার মধ্যে ভীতি ও আতঙ্ক ছড়িয়ে দিয়ে চিরদিন রাষ্ট্রক্ষমতায় আসীন থাকার স্বপ্নে বিভোর হয়েই আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে ব্যবহার করে ছাত্রদল নেতা-কর্মীদেরকে নির্যাতন নিপীড়ণ চালিয়ে যাচ্ছে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও গনতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনকে বাধাগ্রস্থ করতে ফ্যাসিবাদী কায়দায় অবৈধ সরকার ধারাবাহিকভাবে ছাত্রদল নেতা-কর্মীদের হয়রানি করছে। এই ভোটারবিহীন সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করে গণতন্ত্র ফিরিয়ে না আনা পর্যন্ত এদেশের ছাত্রসমাজের মধ্যে স্বস্তি ফিরে আসবে না। 

নেতৃদ্বয় অবিলম্ভে চট্টগ্রামে ছাত্রদল নেতাদের উপর হামলাকারী আইন শৃঙ্খলা বাহিনী সদস্যদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়ার দাবী জানান। অন্যথায় সরকারের সকল প্রকার নির্যাতন সহ্য করে ছাত্রদল নেতা-কর্মীরা দাবি পুরণ না হওয়া পর্যন্ত রাজপথে থাকবে।  

LEAVE A REPLY