ডাঃ মিলনের সমাধিতে ছাত্রদলের শ্রদ্ধাঞ্জলী

আপডেট: নভেম্বর ২৭, ২০১৯
0

৯০-এর দশকে স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে শহীদ ডাক্তার শামসুল আলম খান মিলনের মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ১৯৯০ সালে ২৭ নভেম্বর বিএমএর একটি সভায় যোগদানের উদ্দেশ্যে পিজি হাসপাতালে যাবার পথে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের পাশের সড়কে রিক্সায় বসা অবস্থায় এরশাদ সরকারের ভাড়াটিয়া গুণ্ডাবাহিনীর গুলিতে তিনি শহীদ হন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ ক্যাম্পাসের চত্বরে ( যা বর্তমানে মিলন চত্বর নামে সুপরিচিত) তিনি চিরনিদ্রায় শায়িত আছেন। ডাঃ মিলন শহীদ হওয়ার পর স্বৈরাচার এরশাদের বিরুদ্ধে এক দফার গণ আন্দোলন ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থানে রূপ নেয় এবং স্বৈরাচার এরশাদের পতন ঘটে। নিশ্চিত হয় গণতন্ত্র পূনঃপ্রতিষ্ঠার পথ।

ডাঃ মিলন গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার যে লক্ষ্যে নিজের জীবন দান করেছেন সেই গণতন্ত্র আজ একজনের নির্দেশে চলে। রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকার জন্য ডাঃ মিলনের হত্যাকারী পতিত স্বৈরাচার এরশাদকে নিয়ে ক্ষমতালিপ্সু অবৈধ সরকার আজ রাষ্ট্র ক্ষমতায়। এদেশের ছাত্রসমাজের দাবী মানুষের সাংবিধানিক, গণতান্ত্রিক, মানবাধিকার ও ভোটাধিকার নিশ্চিত করে জন কল্যাণমুখী রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠাই হোক ডাঃ মিলন দিবসের অঙ্গীকার।

আজ সকাল ৮ টায় ডাঃ মিলনের সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ। এসময় উপস্হিত ছিলেন ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের ভারপ্রাপ্ত দপ্তর সম্পাদক আবদুস সাত্তার পাটোয়ারী, সাবেক সহ অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আশরাফুল আলম ফকির লিংকন, সহ স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. তৌহিদ আউয়াল, সহ আপ্যায়ন সম্পাদক এল.আর. ভূইয়া ফরহাদ, সাবেক সদস্য মাইনুদ্দিন নিলয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান হাফিজ, যুগ্ম সম্পাদক মহিন উদ্দিন রাজু, সাইফ মাহমুদ জুয়েল, তানজিল হাসান, শেখ আল ফয়সাল, আরিফুল হক, সহ সাধারণ সম্পাদক মোহতাসিম বিল্লাহ, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, নাসির উদ্দিন নাসির, প্রচার সম্পাদক আক্তার হোসেন, কবি জসিম উদ্দিন হল ছাত্রদলের আহবায়ক নিজাম উদ্দিন রিপন, যুগ্ম আহ্বায়ক মাসুদুর রহমান মাসুদ, নাজমুল হক, মুজিব হলের আহ্বায়ক করিম প্রধান রনি, যুগ্ম আহ্বায়ক সালেহ মোঃ আদনান,

সাদ্দাম হোসেন, বায়েজিদ হোসেন, এসএম হলের সদস্য সচিব আবু জাফর, যুগ্ম আহ্বায়ক মুজাহিদুল ইসলাম, তরিকুল ইসলাম তরিক, নাহিদুজ্জামান শিপন, ছাত্রদল নেতা মাহমুদুল হক মুন্না, জহুরুল হক হলের সদস্য সচিব আমান উল্লাহ আমান, যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল জলিল, ফজলুল হক হলের যুগ্ম আহ্বায়ক শাহদাত হোসেন, এস.এম. দিদারুল ইসলাম, মহসিন হলের যুগ্ম আহ্বায়ক রনি, মেহেদী হাসান, সাইদুর রহমান, প্রিন্স, মামুন, সূর্যসেন হলের যুগ্ম আহ্বায়ক শাফি, কাইয়ুম হোসেন, ছাত্রদল নেতা ফিরোজ হোসেন, বিজয় একাত্তর হলের ছাত্রদল নেতা বিজয়, ঢাকা কলেজ ছাত্রদলের সিনিয়র সহ সভাপতি এইচ.এম. রাশেদ, যুগ্ম সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, ঢাকা মেডিকেল কলেজ ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আলম বাদশা, সাংগঠনিক সম্পাদক মঞ্জুরুল ইসলাম, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন, ছাত্রদল নেতা সিফাত, শিহাব, বেসরকারী মেডিকেল কলেজ ছাত্রদল নেতা তুষার, ওমর ও নাফি প্রমুখ।

LEAVE A REPLY