তারেক রহমানের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে প্রণোদিত রায়ের বিরুদ্ধে ৫০১ জন বিশিষ্ট চিকিৎসকের বিবৃতি

আপডেট: অক্টোবর ১১, ২০১৮

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায়ের বিষয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে ৫০১ জন বিশিষ্ট চিকিসক এক যৌথ বিবৃতি প্রদান করেন। বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ও বিএনপির রাজনীতি নস্যাৎ করার হীন উদ্দেশ্যে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় যে রায় প্রদান করা হয়েছে তা দেশের জনগণ ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে। জিয়া পরিবার তথা জাতীয়তাবদী শক্তিকে ধ্বংস করার জন্য ও রাজনীতি থেকে দূরে রাখার জন্য সরকার একের পর একটা ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে নির্বাচন থেকে তাদের দূরে রাখার অপচেষ্টায় লিপ্ত। তারই অংশ হিসেবে সরকার মিথ্যা, বানোয়াট মামলায় দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারা অন্তরীন করে রেখেছে।

জনাব তারেক রহমানের অন্য একটি মামলায় বেকসুর খালাশ দেওয়ায় বিচারককে দেশ ছাড়া করতে বাধ্য করেছে। অতি সম্প্রতি প্রধান বিচারপতিকে সরকারের পছন্দমত রায় না দেওয়ায় তাকেও দেশ ছাড়তে বাধ্য করেছেন।

রায় ঘোষণার প্রায় ২মাস আগে ক্ষমতাশীন দলের সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করেছিলেন মামলার রায় প্রদান করা হলে বিএনপি গভীর সংকটে পড়বে। তারই কথা এবং আজকের এই রায়ই প্রমাণ করে বিাচার বিভাগ কতটুকু স্বাধীনভাবে কাজ করছে। সরকার নির্দেশিত এই রায়ে বিএনপি কোন সংকটে পড়েনি বরং বিচারবিভাগের উপর সরকারের নগ্ন হস্তক্ষেপ দেশবাসীর কাছে প্রতীয়মান। আমরা এই সাজানো রায়ের তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি ও ঘৃণভারে প্রত্যাখ্যান করছে।