না’গঞ্জে প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বনভোজনের লঞ্চে ডাকাতি ১০ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৯, ২০১৯
0

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ : নদীপথে বনভোজন শেষে ফেরার পথে ডাকাতের কবলে পড়ে নারায়ণগঞ্জের বন্দরের বিএম ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্রদের লঞ্চটি। প্রায় ১০ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুটে নিয়েছে নৌডাকাতরা শুক্রবার (৮ ফেব্রুয়ারী) বিকেল ৫ টায় মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। পাশে থাকা গজারিয়া নৌ পুলিশ এগিয়ে আসেনি। এসময় ডাকাতেরা লঞ্চে থাকা প্রাক্তন ছাত্রদের অস্ত্রের মুখে নগদ টাকা সহ ল্যাপটপ, মোবাইল, মানিব্যাগ, হাত ঘড়ি, জুতা ও জামা কাপড় সহ অন্যান্য আসবাবপত্র লুটে নেয় যায়।
বনভোজনে অংশ নেয়া প্রাক্তন ছাত্র মেহেদী হাসান জানান, নারায়ণগঞ্জ সিটির বন্দরের বিএম ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০০০ সালের এসএসসি ব্যাচের আয়োজনে অন্তত ৫০ জন মিলে বনভোজনের আয়োজন করে। শুক্রবার সকালে নারায়ণগঞ্জ থেকে বেলতলি এলাকার একটি চরে বনভোজনে যান। বনভোজন শেষে ফেরার পথে মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া এলাকায় ৮ থেকে ১০ জনের একটি নৌ ডাকাত দল তাদের উপর হামলা করে। এসময় ডাকাতদের হাতে ছিল রামদা, চাপাতি ও পাইপগান সহ বিভিন্ন রকমের দেশীয় অস্ত্র। ডাকাতদল লঞ্চে উঠেই সকলকে জিম্মি করে ফেলে। যাত্রীদের উপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করার চেষ্টা করে। ফলে সকলেই নিজ ইচ্ছাতেই সঙ্গে জিনিসপত্র দিয়ে নিজেদেরকে প্রাণে বাঁচান। এসময় তাদের সাথে থাকা নগদ টাকা সহ প্রায় ১০ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।
এই ঘটনায় লঞ্চে থাকা প্রাক্তন ছাত্ররা লঞ্চের ড্রাইভারকে সন্দেহ করছেন। কারণ তারা স্থানীয়দের মুখে শুনেছেন লঞ্চের ড্রাইভারদের সাথে যোগসাজেস করে ডাকাতেরা প্রায় সময় এরকম ঘটনা ঘটিয়ে থাকে। ড্রাইভার লঞ্চে বসে ডাকারদের সময় বলে দেন এবং ডাকাত সে সময় অনুযায়ী এসে হামলা করে যাত্রীদের সর্বস্ব ছিনিয়ে নিয়ে যায়।
এ বিষয়ে ডাকাতির কবলে পড়া যাত্রীরা নৌ পুলিশের কাছে ও র‌্যাব-১১ এর স্থানীয় ক্যাম্পে অভিযোগ করেছেন। একই সাথে সে অভিযোগ অনুযায়ী ব্যবস্থা নিবেন আশ্বাস প্রদান করেছেন নৌ পুলিশ। তবে ডাকাতির ঘটনায় বিআইডব্লিটিএর কর্মকর্তাদের কাছে গেলে তারা অত্যন্ত খারাপ ব্যবহার করেছেন বলে অভিযোগ করেছে প্রাক্তন ছাত্ররা।

এম আর কামাল

LEAVE A REPLY