নারায়ণগঞ্জে হাত পা ও মুখ বাঁধা গৃহবধূর লাশ উদ্ধার

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৭, ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে হাত মুখ ও পা বাঁধা অবস্থায় এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় তাঁর স্বামীকে আটক করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারী) সকালে সিদ্ধিরগঞ্জের নতুন বাজার এলাকার হান্নান মিয়ার বাড়ির ভাড়া বাসা থেকে ওই লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ১০০ শয্যা বিশিষ্ট নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।
নিহত গৃহবধূর নাম নাঈমা আক্তার (২৩)। সে বাগের হাট জেলার দেলোয়ার মোল্লার মেয়ে। আটক স্বামী হলো শহিদুল ইসলাম (৩০)। সে খুলনা তালিমপুর এলাকার নুরুল ইসলামের ছেলে।
স্থানীয়দের বরাত দিয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রফিকুল ইসলাম জানান, সিদ্ধিরগঞ্জের নতুন বাজার এলাকায় ছোট ভাই আমিনুল ইসলামের বাসায় স্ত্রীকে নিয়ে শহিদুল ইসলাম বসবাস করছিল। বৃহস্পতিবার সকালে খাবারের জন্য আমিনুল ইসলামের স্ত্রী খাদিজা বেগম ডাক দিতে গেলে হাত, মুখ ও পা বাঁধা অবস্থায় ঘরের আড়ার সঙ্গে নাঈমা আক্তারের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায়। পরে পুলিশকে জানালে পুলিশ গিয়ে নাঈমা আক্তারের লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় তার স্বামী শহিদুল ইসলামকে আটক করা হয়।
তিনি আরো জানান, ধারণা করা যাচ্ছে পারিবারিক কলহের জের ধরে তার স্বামী তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রেখেছে। তবে ময়নাতদন্তের পর মৃত্যু সঠিক কারণ বলা যাবে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তূতি চলছে।