নোবেল পুরস্কারের ঘোষণা শুরু আজ

আপডেট: অক্টোবর ১, ২০১৮

প্রতি বছরের মত এ বছরও দেয়া হবে নোবলে পুরস্কার। আজ চিকিৎসাবিদ্যায় নোবেলজয়ীর নাম ঘোষণার মধ্য দিয়ে শুরু হবে এ বছরের নোবেলজয়ীদের নাম ঘোষণা। তবে এ বছর সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার দেয়া হবে না।

শুরুতে চিকিৎসায় নোবেলজয়ীর নাম ঘোষণা পর পর্যায়ক্রমে বাকি বিভাগে নোবেলজয়ীর নাম ঘোষণা করবে রয়্যাল সুইডিশ একাডেমি।

তবে এ বছর সাহিত্যে নোবেল দেয়া না হলেও আগামী বছর এক্ষেত্রে দুই বছরের নোবেলজয়ীর নাম ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছে নোবেল পুরস্কার ঘোষণাকারী প্রতিষ্ঠান রয়্যাল সুইডিশ একাডেমি।

সম্প্রতি সুইডিশ একাডেমির সদস্যদের বিরুদ্ধে যৌন কেলেঙ্কারি ও আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ ওঠায় কর্তৃপক্ষ এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে বাকি সব পুরস্কারই আগের মতো নিয়মিত থাকছে।

১৯০১ সালে সুইডিশ বিজ্ঞানী আলফ্রেড নোবেলের নামানুসারে নোবেল পুরস্কার প্রবর্তিত হয়। ওই বৎসর থেকে সারা পৃথিবীর বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে সফল এবং অনন্য সাধারণ গবেষণা ও উদ্ভাবন এবং মানবকল্যাণমূলক তুলনারহিত কর্মকাণ্ডের জন্য এই পুরস্কার প্রদান করা হচ্ছে।

মোট ছয়টি বিষয়ে পুরস্কার প্রদান করা হয়। বিষয়গুলো হল: পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, চিকিৎসা শাস্ত্র, অর্থনীতি, সাহিত্য এবং শান্তি। নোবেল পুরস্কারকে এ সকল ক্ষেত্রে বিশ্বের সবচেয়ে সম্মানজনক পদক হিসেবে বিবেচনা করা হয়। নোবেল পুরস্কারপ্রাপ্তদেরকে ইংরেজিতে নোবেল লরিয়েট বলা হয়।

আলফ্রেড নোবেলের ১৮৯৫ সালে করে যাওয়া একটি উইল এর মর্মানুসারে নোবেল পুরস্কার প্রচলন করা হয়। নোবেল মৃত্যুর পূর্বে উইলের মাধ্যমে এই পুরস্কার প্রদানের ঘোষণা করে যান। শুধুমাত্র শান্তিতে নোবেল পুরস্কার প্রদান করা হয় অসলো, নরওয়ে থেকে। বাকি ক্ষেত্রে স্টকহোম, সুইডেনে এই পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

অর্থনীতি ছাড়া অন্য বিষয়গুলোতে ১৯০১ সাল থেকে পুরস্কার প্রদান করা হচ্ছে। কিন্তু অর্থনীতিতে পুরস্কার প্রদান শুরু হয়েছে ১৯৬৯ সালে। আলফ্রেড নোবেল তার উইলে অর্থনীতির কথা উল্লেখ করেননি। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের জন্য ১৯৪০ থেকে ১৯৪২ সাল পর্যন্ত পুরস্কার প্রদান বন্ধ ছিল। প্রত্যেক বছর পুরস্কারপ্রাপ্তদের প্রত্যেক একটি স্বর্ণপদক, একটি সনদ ও নোবেল ফাউন্ডেশন কর্তৃক অর্থ পেয়ে থাকেন। ২০১২ খ্রিস্টাব্দে এই অর্থের পরিমাণ ছিল ৮০ লক্ষ সুইডিশ ক্রোনা (প্রায় আট কোটি টাকা)।