পরিবেশ দূষণের দায়ে১০ কারখানাকে এক কোটি ৫ লক্ষাধিক টাকা জরিমানা

আপডেট: মে ৩০, ২০১৯
0

 

গাজীপুর সংবাদদাতা ঃ গাজীপুরের ৬টিসহ ১০টি কারখানাকে মোট এক কোটি ৫ লাখ ৬৮ হাজার ৭৮৪ টাকা ক্ষতিপূরণ ধার্য করে জরিমানা করেছে পরিবেশ অধিদপ্তরের এনফোর্সমেন্ট উইং। পরিবেশগত ও অবস্থানগত ছাড়পত্র গ্রহণ ও ইটিপি ব্যাতিত কারখানা পরিচালনা করে এবং পরিবেশের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর দূষিত তরল বর্জ্য অপরিশোধিত অবস্থায় সরাসরি পরিবেশে নির্গমন করে পরিবেশ ও প্রতিবেশের ক্ষতিসাধন করায় এ জরিমানা করা হয়। বৃহষ্পতিবার পরিবেশ অধিদপ্তর ঢাকা সদর দপ্তরের উপ পরিচালক (মনিটরিং এন্ড এনফোর্সমেন্ট) ড. আব্দুল্লাহ আল মামুন এ তথ্য জানিয়েছেন।

পরিবেশ অধিদপ্তর ঢাকা সদর দপ্তরের ওই কর্মকর্তা জানান, পরিবেশ দূষণবিরোধী অভিযান ও পরিবেশ সংরক্ষণ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক (মনিটরিং এন্ড এনফোর্সমেন্ট উইং) রুবিনা ফেরদৌসী পরিবেশ দূষণের দায়ে গাজীপুর জেলার ৬টি কারখানাসহ ঢাকা জেলার ২টি, নরসিংদী জেলার ১টি ও টাঙ্গাইল জেলার ১টি সহ সর্বমোট ১০টি কারখানা মালিক/প্রতিনিধিকে পরিবেশ অধিদপ্তরের ঢাকা সদর দপ্তরে এনফোর্সমেন্ট উইংয়ে তলব করে শুনানী গ্রহণ করেন। শুনানী শেষে পরিবেশগত ও অবস্থানগত ছাড়পত্র গ্রহণ ও ইটিপি ব্যাতিত কারখানা/জেনারেটর স্থাপন ও পরিচালনা করে এবং পরিবেশের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর দূষিত/নির্ধারিত মানমাত্রা বহির্ভূত তরল বর্জ্য অপরিশোধিত অবস্থায় সরাসরি পরিবেশে নির্গমন করে জনজীবন এবং পরিবেশ ও প্রতিবেশের ক্ষতিসাধন করায় গাজীপুর জেলার এপারেল আর্ট লিমিটেডকে ২৭ লাখ ৩০ হাজার ২৪০ টাকা, একই জেলার বিএইচটি ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেডকে ৯ লাখ ৮৯ হাজার ১৮৪ টাকা, ওয়ান কম্পোজিট মিলস লিমিটেডকে ৬ লাখ ৪৩ হাজার ২শ’ টাকা, পারফেটি ভ্যান মিলি: বাংলাদেশ লিমিটেডকে ৩ লাখ ৪৫ হাজার ৬শ’ টাকা, কিউপিড ওয়াশকে ২ লাখ টাকা ও গোল্ডেন হারভেস্ট লিমিটেডকে ৪৫হাজার ৪৪০ টাকা, টাঙ্গাইলের আলাউদ্দিন টেক্সটাইলকে (এটিএম) ৫১ লাখ ৮৪ হাজার টাকা, ঢাকা জেলার আকিজ ফুড এন্ড বেভারেজকে ৩ লাখ ৬১ হাজার ৯২০ টাকা ও ইয়ং জীন ইন্টারন্যাশনালকে ১ হাজার ৬৩২ টাকা এবং নরসিংদীর হাসান টেক্সটাইল লিমিটেডকে ৬৭ হাজার ৫৮৪ টাকা ক্ষতিপূরণ ধার্য করে জরিমানা করেন।

এর আগে মনিটরিং কার্যক্রমের অংশ হিসেবে মনিটরিং এন্ড এনফোর্সমেন্ট টিম ওইসব কারখানাসহ বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করেন। এসময় তারা কারখানা হতে নির্গত তরল বর্জ্যরে নমুনা কারখানার ইটিপি’র আউটলেট ও বাইপাস লাইন হতে সংগ্রহ করে তা বিশ্লেষণের ফলাফলে পরিবেশ সংরক্ষণ বিধিমালা, ১৯৯৭ অনুযায়ী গ্রহণযোগ্য মানমাত্রার বর্হিভুত দেখতে পান, যা পরিবেশের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।
###
মোঃ রেজাউল বারী বাবুল

LEAVE A REPLY