পাকিস্তানে মুফতি ত্বকি উসমানীকে হত্যাচেষ্টা

আপডেট: মার্চ ২২, ২০১৯
0

হত্যার উদ্দেশ্যে পাকিস্তানের প্রখ্যাত ইসলামিক স্কলার মুফতি মোহাম্মদ ত্বকি ওসমানির ওপর হামলা চালিয়েছে বন্দুকধারীরা।

তবে এ হামলায় তার দুই নিরাপত্তারক্ষী নিহত হলেও তিনি অক্ষত আছেন। শুক্রবার পাকিস্তানের দক্ষিণাঞ্চলীয় বন্দর নগরী করাচিতে ত্বকি ওসমানির গাড়িতে এই হামলা চালানো হয়। এ খবর দিয়েছে দ্য ডন অনলাইন।

করাচি পুলিশের প্রধান ড. আমির শেখ জানিয়েছেন, যে দুটি গাড়িতে গুলিবর্ষণ করা হয়েছে সেগুলোর একটিতে মুফতি ওসমানি ও তার স্ত্রী ছিলেন। তিনি ও তার স্ত্রীর ক্ষতি হয়নি হামলায়।

জানা যায়, করাচির গুলশান-ই-ইকবাল ও শারিয়া ফয়সাল এলাকায় প্রথমে দুটি পৃথক গুলিবর্ষণের খবর পাওয়া যায়। পরে পুলিশ জানায় উভয় গাড়িই নিপা ফ্লাইওভারে হামলার মুখে পড়েছে।

করাচি পূর্ব জোনের পুলিশের উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) আমির ফারুকি জানান, পুলিশের নিরাপত্তারক্ষী ফারুক এবং বেসরকারি সংস্থার নিরাপত্তারক্ষী সানোবার খান হামলায় নিহত হয়েছেন।

জিন্নাহ পোস্টগ্র্যাজুয়েট মেডিক্যাল সেন্টারের পরিচালক ড. সিমি জামালি জানান, হামলায় আহত অপর একজন মাওলানা আমিরের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

তাকে মাথায় ও বুকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এখন তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে।

পাকিস্তান পুলিশের ডিআইজি ফারুকি জানান, হামলায় এক পথচারীও আহত হয়েছেন। হামলার ঘটনাস্থল থেকে নাইনএমএম পিস্তলের গুলির খোসা পাওয়া গেছে।

সিসিটিভির ফুটেজ ও অন্যান্য প্রমাণাদি পর্যালোচনা করা হচ্ছে।

জিও টিভির সাংবাদিক মুফতি ত্বকি ওসমানির সঙ্গে হামলার পর কথা বলেছেন। উসমানি জানিয়েছেন, স্ত্রী ও দুই নাতিকে নিয়ে গাড়িতে ছিলেন। তারা সবাই অক্ষত আছেন।

গাড়ির পেছন থেকে প্রথমে মোটরসাইকেল আরোহী গুলি করে এবং পরে সে সামনে গিয়েও গুলি ছুড়ে।

LEAVE A REPLY