প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি: জামিন পেলেন চবি শিক্ষক

আপডেট: অক্টোবর ৯, ২০১৮

ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে দায়ের করা মামলায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) সহকারী অধ্যাপক মাইদুল ইসলামের অন্তর্বর্তীকালীন ছয় মাসের জামিন মঞ্জুর করেছেন হাইকোর্ট।

জামিন সংক্রান্ত আবেদনের শুনানি নিয়ে মঙ্গলবার হাইকোর্টের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী হাসনাত কাইয়ুম।

কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের পক্ষ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে ‘কটূক্তি’ করে ফেসবুকে পোস্ট দেয়ার অভিযোগে গত ২৩ জুলাই চবি সমাজতত্ত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মাইদুল ইসলামের বিরুদ্ধে হাটহাজারী থানায় তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় মামলা করেন এক ছাত্রলীগ নেতা।

গত ৬ আগস্ট হাইকোর্ট থেকে তিনি আট সপ্তাহের আগাম জামিন নেন। হাইকোর্টের দেয়া আট সপ্তাহের জামিন শেষে গত ২৪ সেপ্টেম্বর জেলা ও দায়রা জজ আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন মাইদুল ইসলাম।

আদালত জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

পরে ২৫ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ মাইদুল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

এরপর গত ৮ অক্টোবর চট্টগ্রামের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শহীদুল্লাহ কায়সারের আদালত তার তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।