বরিশালে শিশুদের পঠন দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ক গোলটেবিল আলোচনা অনুষ্ঠিত

আপডেট: আগস্ট ২৩, ২০১৭

বরিশাল ব্যুরো

বরিশাল বিভাগের সাংবাদিকদের সাথে শিশুদের পঠন দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ে এক গোলটেবিল আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইউএসএআইডি’র অর্থায়নে ও সেভ দ্য চিলড্রেন’র কারিগরি সহযোগিতায় “রিডিং ইনহেন্সমেন্ট ফর এডভান্সিং ডেভেলপমেন্ট (রিড) প্রকল্প’র উদ্যোগে এই গোলটেবিল আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।
শিশুদের পঠন দক্ষতা ও প্রাথমিক শিক্ষার গুনগত মান উন্নয়নে গণমাধ্যমের ভূমিকা আরো সুদৃঢ করার লক্ষে বুধবার বরিশাল নগরীর বিভাগীয় প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের কার্যালয়ের সেমিনার রুমে দিনব্যাপী গোলটেবিল আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগীয় সহকারী পরিচারক মো. আরিফ বিল্লা।
বরিশাল প্রেসক্লাবের সভাপতি কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন- রিডিং প্রকল্পের উপ-পরিচালক মো. আকিদুল ইসলাম, বরিশাল বিভাগে রিড প্রকল্প বাস্তবায়নকারী এনজিও কোডেক’র পরিচালক আফসার হাবীব ও সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. মোস্তফা কামাল।
এছাড়াও রিড প্রকল্পের মিডিয়া রিলেশন্স এর ডেপুটি ম্যানেজার মেহের নিগার জেরিন সহ বরিশাল, পটুয়াখালী, বরগুনা এবং ঝালকাঠি জেলায় কর্মরত ২৫ জন সাংবাদিক এবং সেভ দ্য বিলড্রেন ও কোডেক এর কর্মকর্তারা গোলটেবিল আলোচনায় অংশ নেন।
আলোচনায় প্রধান অতিথি’র বক্তৃতায় বিভাগীয় প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের সহকারী পরিচালক আরিফ বিল্লাহ বলেন, বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষার দিক থেকে অনেক এগিয়ে আছে। বাংলাদেশের জন্য মান সম্মত প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিত করার জন্য প্রথম থেকে দ্বিতীয় শ্রেণির শিশুদের পঠন দক্ষতা বৃদ্ধির প্রয়োজন।


প্রাথমিক শিক্ষার ভিত্তি হচ্ছে প্রথম থেকে দ্বিতীয় শ্রেণি পর্যন্ত। কারন এই সময়েই শিশুর তাদের মাতৃভাষার পঠন দক্ষতা অর্জন করে এবং তাই সেই শিশুদের সমগ্র জীবনের শিক্ষার উপর প্রভাব ফেলে। সকল শিক্ষার ভিত্তি হিসেবে প্রাথমিক শিক্ষার উপরে আরো জোর দেয়ার জন্য সাংবাদিকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন বক্তারা।
উল্লেখ্য, ইউএসএআইডি’র অর্থায়নে ও সেভ দ্য চিলড্রেন এর কারিগরি সহযোগিতায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সাথে ২০১৩ সাল থেকে কাজ করে আসছে রিড প্রকল্পটি।
বর্তমানে দেশের ৭টি বিভাগের ১৮টি জেলায় বাস্তবায়িত রিড প্রকল্পের কার্যক্রমের একটি উল্লেখযোগ্য অংশ বাস্তবায়িত হচ্ছে ঝালকাঠী, বরগুনা এবং পটুয়াখালী জেলার ৫টি উপজেলার মোট ২৮৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ২৪ হাজার ৯৬৪ জন শিশু ও ১৩১ কমিউনিটি রিডিং ক্যাম্পে ১০ হাজার ৯৫১ শিশু এর মাধ্যমে।
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের পেশাগত দক্ষতা উন্নয়নের উদ্দেশ্যে পাঠদান সম্পর্কে নির্দেশনা প্রদান ও শিক্ষার্থীদের পঠন দক্ষতা যাচাই সম্পর্কিত প্রশিক্ষণ, বিদালয়ে মানসম্মত শিশুতোষ বই, বুক কর্নার, বিভিন্ন প্রিন্ট রিচ উপকরণ, বর্ণ, শব্দ এবং সরল বাক্য চার্ট, পোস্টার, খেলা ও লেবেল প্রদান, পিছিয়ে পড়া শিশুদের জন্য কমিউনিটি রিডিং ক্যাম্পের মাধ্যমে এই প্রকল্পটি বরিশাল বিভাগে কাজ করছে।
২০১৮ সালের মধ্যে রিড প্রকল্প প্রত্যক্ষভাবে সারা দেশের ১ দশমিক ৫ মিলিয়ন শিশুর পঠন-দক্ষতা বৃদ্ধিতে ভুমিকা রাখবে বলে আশাব্যক্ত করেছেন সংশ্লিষ্টরা