বানারীপাড়ায় চাখারে স্কুল ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষনের অভিযোগ

আপডেট: মে ৩০, ২০১৯
0

রাহাদ সুমন,বানারীপাড়া:
বানারীপাড়ার চাখারে বিয়ের প্রলোভনে ১০ শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগে পাওয়া গেছে। এ ব্যপারে বিচার প্রার্থী ওই ধর্ষিতা ছাত্রীর মা মনি বেগম বুধবার থানায় ৫ জনকে আসামী করে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।অভিযুক্তরা হলেন চাখার ইউনিয়নের বাগড়া গ্রামের আরিফ হোসেন(২০),তার পিতা নুরুল ইসলাম বেপারী(৫৫),মা মরিয়ম বেগম(৫০),বোন তানিয়া (৩২) ও বন্ধু সোহেল(১৯)। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে চাখার ওয়াজেদ মেমোরিয়াল বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ শ্রেণীর ছাত্রীর (১৫) সঙ্গে পার্শ্ববর্তী বাড়ির আরিফ হোসেনের সঙ্গে গত ৫ বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিলো । বখাটে আরিফ ওই স্কুল ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন স্থানে নিয়ে গিয়ে ধর্ষন করে। বিষয়টি জেনে ওই ছাত্রীর বাবা-মা আরিফের বাবা-মায়ের কাছে বিচার দিলে তারা পূর্ণ বয়সপ্রাপ্ত হলে ওই স্কুল ছাত্রীকে সামাজিক ভাবে তাদের পুত্রবধু করে নেবে মর্মে আশ্বস্ত করে স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে রেফে লিখিতভাবে অঙ্গীকার করেন। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে বুধবার সকাল ১০টার দিকে আরিফ তার প্রেমিকা ওই স্কুল ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে চাখারে জনৈক সুমনা বেগমের ভাড়াটিয়া বাসায় নিয়ে যান এবং সেখানে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত অবস্থান করে তাকে একাধিবার ধর্ষন করে। বিষয়টি জানতে পেরে ওই স্কুল ছাত্রীর পরিবার আরিফের বাবা,মা ও বোনকে জানালে তারা বিয়ের অঙ্গীকার অস্বীকার করে তাদের অপমান করে তাড়িয়ে দেয়। ফলে ধর্ষিতা ওই স্কুল ছাত্রীর মা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। ###

LEAVE A REPLY