বিশ্বের সেরা অক্সফোর্ড : আড়াইশোতেও নেই দক্ষিণ এশিয়ার কোন বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৭
বিশ্বের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় প্রথম স্থান নিজেদের দখলে রাখল অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়।

দেশ জনতা ডেস্ক: সদ্য প্রকাশিত টাইম্‌স হায়ার এডুকেশন ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি র‌্যাঙ্কিং অনুযায়ী এ বছরও বিশ্বের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় প্রথম স্থান নিজেদের দখলে রাখল অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়।

৯২১ বছরের প্রাচীন এই ব্রিটিশ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রতি বছর প্রায় ২৪ হাজার ছাত্রছাত্রী উচ্চশিক্ষার পাঠ নেন। তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে আর একটি ঐতিহ্যশালী ব্রিটিশ বিশ্ববিদ্যালয় কেমব্রিজ।

গত বছরের তালিকায় চার নম্বরে থাকা কেমব্রিজ এ বছর তালিকার দু’ নম্বরে উঠে এসেছে। গত ১৩ বছরে এই প্রথম বার বিশ্বসেরার তালিকার প্রথম দু’টি স্থানেই দুই ব্রিটিশ বিশ্ববিদ্যালয় রইল।
তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি এবং স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়। তালিকার পঞ্চম স্থানটিও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেট্স ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজি-এর দখলে। বিশ্ব সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকার প্রথম দশের ছ’ টি-ই রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের দখলে। তালিকার প্রথম দশে মার্কিন ও ব্রিটিশ বিশ্ববিদ্যালয়গুলির আধিপত্যের মধ্যেও জায়গা করে নিয়েছে সুইস ফেডারেল ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি জুরিখ। তালিকার ন’ নম্বরে রয়েছে সুইৎজারল্যান্ডের এই বিশ্ববিদ্যালয়টি।

এই তালিকা তৈরির ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয়গুলির গবেষণামূলক উত্কর্ষ, মোট ছাত্রছাত্রী সংখ্যা, বিভাগ, বিদেশি ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা ইত্যাদি আরও নানা খুঁটিনাটি দিক বিবেচনা করে দেখা হয়।
বিশ্বের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকার প্রথম আড়াইশোতে কোনও ভারতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম নেই। তালিকার ২৫১ থেকে ৩০০ নম্বরের মধ্যে স্থান পেয়েছে ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স (আইআইএসসি)।
তালিকায় এটিই প্রথম ভারতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। গত বছরের তালিকায় এই বিশ্ববিদ্যালয়টি ২০১ থেকে ২৫০-র মধ্যে ছিল। এর পর যে ভারতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এই তালিকায় জায়গা পেয়েছে তা হল আইআইটি বম্বে। তালিকার ৩৫১ থেকে ৪০০-র মধ্যে স্থান পেয়েছে এই বিশ্ববিদ্যালয়। ৫০১ থেকে ৬০০-র মধ্যে স্থান পেয়েছে আইআইটি দিল্লি, আইআইটি কানপুর, আইআইটি খরগপুর এবং আইআইটি রুরকি। পশ্চিমবঙ্গের যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় এই তালিকার ৬০১ থেকে ৮০০-র মধ্যে স্থান পেয়েছে।