মুক্তবাণিজ্য চুক্তির সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি: বাণিজ্যমন্ত্রী

আপডেট: অক্টোবর ১৯, ২০১৯
0

 

মুক্তবাণিজ্য চুক্তির জন্য আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি বলে মন্তব্য করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

তিনি বলেন, রাশিয়া এবং ব্রাজিলে ৫০ কোটি মানুষ আছে। এই বাজারটি যদি মুক্তবাণিজ্য চুক্তির মাধ্যমে ধরতে পারি, তাহলে আমাদের হয়ে যাবে।

আজ শনিবার রাজধানীর গুলশানের একটি হোটেলে আয়োজিত ‘ফস্টারিং গ্লোবাল ফ্রি ট্রেড রিলেশনস’ শীর্ষক সেমিনারে অংশ নিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
সেমিনারটি আয়োজন করে কমনওয়েলথ অব ইন্ডিপেন্ডেন্ট স্টেট-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (সিআইএস-বিসিসিআই)।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি মো. হাবিব উল্লাহ ডনের সভাপতিত্বে সেমিনারে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব নজিবুর রহমান, রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার আই ইগনোটভ প্রমুখ।
টিপু মুনশি বলেন, ব্রাজিল আমাদের তৈরি পোশাক নিতে চায়। তবে তারা গরুর গোশত দিতে চায়। এটি একটি সমস্যা। গরুর গোশত নিলে কী পরিমাণ লোকসান হলেও তৈরি পোশাক দিয়ে কী পরিমাণ লাভ হবে, তা আমাদের বের করতে হবে।

সমন্বয়ের মাধ্যমে রাজস্ব আদায়ের ওপর গুরুত্ব দিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আমাদের ব্যালেন্স কর্মসূচির মাধ্যমে এগোতে হবে। রাজস্ব আদায় অবশ্যই করতে হবে। কিন্তু সেটা জোর-জবরদস্তি করে নয়।

ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, আমরা এখন পর্যন্ত একটি দেশের সঙ্গেও মুক্তবাণিজ্য চুক্তি করতে পারিনি। এতে আমাদের পণ্য দেশের চেয়ে বেশি দামে বিক্রি করতে হয়।
এছাড়া শ্রমিক অধিকার বাস্তবায়নে আন্তর্জাতিক নীতি সবদেশে প্রয়োগের জন্য চাপ সৃষ্টি করতে হবে। অন্যথায় আমরা প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে যাচ্ছি।

তিনি বলেন, আগে বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের (এফবিসিসিআই) ভোটার ছিল পাঁচ হাজার। এখন এক হাজার নয়শ’ জন।
এতে বোঝা যায়, অনেক ফ্যাক্টরি বন্ধ হয়ে গেছে। যারা টিকে আছে সবাই সেরার সেরা। তাই আমাদের মান নিয়ে প্রশ্ন নেই। বাণিজ্যের যে বাধাগুলো আছে, সেগুলো দূর করতে হবে।

LEAVE A REPLY