যেখানে পাচ্ছে শিক্ষার্থীদের চাপা দিচ্ছে বাস : দেশ জুড়ে বিক্ষোভ

আপডেট: মার্চ ২৩, ২০১৯
0

বিশেষ প্রতিনিধি:
যেখানে পাচ্ছে শিক্ষার্থীদের চাপা দিচ্ছে বাস । এ যেন ক্রোধের হত্যাকান্ড। দেশ জুড়ে আজ এক দিনে সারা দেশে ৬ শিক্ষার্থীকে বাস চাপা দিয়ে হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। প্রত্যক্ষদর্শীদের বণর্নায় ইচ্ছা করেই চাপা দিয়ে যাচ্ছে ঘাতক বাস। আজ সারা দেশে গাজীপুর, নরসংদী, বরিশাল িসিলেটে এসব ঘটনা ঘটে। এসব ঘটনায় দেশ এলাকাজুড়েই চলছে ধর্মঘট, বিক্ষোভ । কিন্তু কোন কিছুতেই টনক নড়ছে না সরকারের।

প্রতিনিধিদের পাঠানো তথ্যে দেখা গেছে :
গাজীপুর: গাজীপুরে বাসের চাপায় দুই কলেজছাত্র নিহত, শিশুসহ আহত-২। গাজীপুরে বাসের চাপায় দুই কলেজছাত্র নিহত, শিশুসহ আহত-২

গাজীপুর সংবাদদাতাঃ গাজীপুর মহানগরের ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে সালনা এলাকায় শনিবার বাস চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী দুই কলেজ ছাত্র নিহত এবং তার এক সতীর্থসহ দুইজন আহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- স্থানীয় লিঙ্কন স্কুল এন্ড কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্র গাজীপুর মহানগরের মাস্টারবাড়ি এলাকার জুম্মান হোসেন নাছির (১৮) এবং সতীর্থ ভীমবাজার এলাকার বাসিন্দা রবিন (২২)। আহতরা হলেন লিঙ্কন স্কুল এন্ড কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্র ও দক্ষিণ বাউপাড়া এলাকার বাসিন্দা মো. আলামিন (১৮) এবং আসোয়াত (১১) ।
গাজীপুর সদর থানার এসআই শহিদুল ইসলাম জানান, মহানগরের ইটাহাটা এলাকার লিঙ্কন কলেজ থেকে মোটরসাইকেলে চড়ে তিন বন্ধু বাড়িতে যাওয়ার পথে দুপুর পৌণে একটার দিকে দক্ষিণ সালনা এলাকায় কনকর্ড গার্মেন্টের সামনে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে বিপরীতগামী একটি অটোরিকশার সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এতে মোটরসাইকেলের তিন আরোহী ছিটকে মহাসড়কের উপর পড়ে যায়। এসময় ময়মনসিংগামী সৌখিন পরিবহনের একটি বাস ওই কলেজ ছাত্র নাছিরকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তিনি নিহত হন। এসময় তার সঙ্গে মোটরসাইকেল আরোহী রবিন ও আলামিন এবং অটোরিকশা যাত্রী শিশু আসোয়াত আহত হন। তাদের উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক প্রণয় ভ’ষন জানান, আহতদের মধ্যে রবিনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে এবং আলামিন ও আসোয়াতকে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
লিঙ্কন কলেজের অধ্যক্ষ মো. আজিজুল হক সিকদার বলেন, নাছির, আলামিন ও রবিন সকলেই লিঙ্কন কলেজের একাদশ শ্রেণীর মানবিকের ছাত্র। শনিবার তারা সকলেই বর্ষোত্তীর্ণ পরীক্ষা শেষে মোটরসাইলেযোগে বাসায় ফিরছিলেন। পথে গাজীপুর মহানগরের দক্ষিণ সালনা এলাকায় বাস চাপায় নাছির ঘটনাস্থলে এবং রবিন ঢাকা হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা গেছেন।

সিলেট :বাস থেকে ফেলে সিকৃবি শিক্ষার্থী ওয়াসিমকে বাসচাপা দিয়ে হত্যা, বিক্ষুব্ধদের ভাঙচুর । ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শেরপুরে বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিকৃবি) এক শিক্ষার্থীকে হত্যা করেছে বাসটির চালক ও তার সহকারী। নিহত ছাত্রের নাম ওয়াসিম আফনান। তিনি সিকৃবির বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টের চতুর্থ বষের ছাত্র।
তার বাড়ি হবিগঞ্জে নবীগঞ্জ উপজেলার দেবপাড়া ইউনিয়ন রুদ্র গ্রামে। তার বাবার নাম মো. আবু জাহেদ মাহবুব ও মা ডা. মীনা পারভিন।
শনিবার বিকাল ৫টায় সিলেট ময়মনসিংহ রোডের উদার পরিবহন নামে একটি বাসের চালক ও হেলপার মিলে এ হত্যাকাণ্ড ঘটায় বলে জানায় নিহতের বন্ধুরা।
সূত্র জানায়, প্রথমে ওয়াসিমকে বাস থেকে ফেলে দেয় হেলপার। পরে তার ওপর দিয়ে বাস চালিয়ে নিয়ে যায় বাসের চালক। ওয়াসিমের লাশ সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। খবর পেয়ে রাত পৌনে ৮টায় সিকৃবির ছাত্ররা ওসমানী হাসপাতালে ছুটে যান। এ সময় উত্তেজিত ছাত্ররা বাসচালক ও হেলপারের শাস্তির দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ করেন। সেখান থেকে শতাধিক ছাত্র ছুটে যান নগরীর দক্ষিণ সুরমার কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে।

গাজীপুর সংবাদদাতাঃ গাজীপুর মহানগরের ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে সালনা এলাকায় শনিবার বাস চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী দুই কলেজ ছাত্র নিহত এবং তার এক সতীর্থসহ দুইজন আহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- স্থানীয় লিঙ্কন স্কুল এন্ড কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্র গাজীপুর মহানগরের মাস্টারবাড়ি এলাকার জুম্মান হোসেন নাছির (১৮) এবং সতীর্থ ভীমবাজার এলাকার বাসিন্দা রবিন (২২)। আহতরা হলেন লিঙ্কন স্কুল এন্ড কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্র ও দক্ষিণ বাউপাড়া এলাকার বাসিন্দা মো. আলামিন (১৮) এবং আসোয়াত (১১) ।
গাজীপুর সদর থানার এসআই শহিদুল ইসলাম জানান, মহানগরের ইটাহাটা এলাকার লিঙ্কন কলেজ থেকে মোটরসাইকেলে চড়ে তিন বন্ধু বাড়িতে যাওয়ার পথে দুপুর পৌণে একটার দিকে দক্ষিণ সালনা এলাকায় কনকর্ড গার্মেন্টের সামনে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে বিপরীতগামী একটি অটোরিকশার সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এতে মোটরসাইকেলের তিন আরোহী ছিটকে মহাসড়কের উপর পড়ে যায়। এসময় ময়মনসিংগামী সৌখিন পরিবহনের একটি বাস ওই কলেজ ছাত্র নাছিরকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তিনি নিহত হন। এসময় তার সঙ্গে মোটরসাইকেল আরোহী রবিন ও আলামিন এবং অটোরিকশা যাত্রী শিশু আসোয়াত আহত হন। তাদের উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক প্রণয় ভ’ষন জানান, আহতদের মধ্যে রবিনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে এবং আলামিন ও আসোয়াতকে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
লিঙ্কন কলেজের অধ্যক্ষ মো. আজিজুল হক সিকদার বলেন, নাছির, আলামিন ও রবিন সকলেই লিঙ্কন কলেজের একাদশ শ্রেণীর মানবিকের ছাত্র। শনিবার তারা সকলেই বর্ষোত্তীর্ণ পরীক্ষা শেষে মোটরসাইলেযোগে বাসায় ফিরছিলেন। পথে গাজীপুর মহানগরের দক্ষিণ সালনা এলাকায় বাস চাপায় নাছির ঘটনাস্থলে এবং রবিন ঢাকা হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা গেছেন।
###

বরিশাল :: ব‌রিশা‌লে সড়ক দুর্ঘটনায় সহপাঠীসহ ৭ জন নিহ‌ত হওয়ার প্র‌তিবা‌দে বি‌ক্ষোভ মি‌ছিল ও সড়ক অব‌রোধ ক‌রে‌ছেন বিএম ক‌লেজ শিক্ষার্থীরা। শনিবার (২৩ মার্চ) ‌সকাল সা‌ড়ে ১০টায় বিএম (ব্রজ‌মোহন) ক‌লেজ থে‌কে বি‌ক্ষোভ মি‌ছিল শুরু ক‌রে শিক্ষার্থীরা। মি‌ছিল‌টি নথুল্লাবাদ হোসাই‌নিয়া মাদ্রাসায় পৌঁছা‌লে বাধা দেয় পু‌লিশ। প্রথ‌মে সেখা‌নে সড়ক অব‌রোধ ক‌রেন তারা। এরপর পু‌লি‌শের বাধা অ‌তিক্রম ক‌রে নথুল্লাবাদ কেন্দ্রীয় বাস টা‌র্মিনা‌লের সাম‌নে সেখা‌নে ঢাকা-ব‌রিশাল মহাসড়ক অব‌রোধ ক‌রে শিক্ষার্থীরা। প‌রে সেখা‌নে তারা বি‌ভিন্ন যানবাহ‌নের কাগজপত্র চেক ক‌রে এবং ঘাতক চাল‌কের দৃষ্টান্তমুলক বিচার দাবিতে ‌স্লোগান দেয়।
শিক্ষার্থীরা জানায়, তারা নিরাপদ সড়‌কের দাবি‌তে এবং বিএম ক‌লে‌জের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী শিলা হালদারসহ সাতজন নিহত হওয়ার ঘটনার প্র‌তিবা‌দে সড়ক অব‌রোধ ও বি‌ক্ষোভ কর‌ছেন।

এ‌দি‌কে পু‌লিশ জানায় শিক্ষার্থীদের বু‌ঝি‌য়ে প‌রি‌স্থি‌তি নিয়ন্ত্র‌ণের চেষ্টা করেন। প‌রে কেন্দ্রীয় বাস টা‌র্মিনাল থে‌কে সড়ক অব‌রোধ স‌রি‌য়ে নি‌য়ে শিক্ষার্থী‌দের ক্লা‌সে ফি‌রে যাওয়ার আহ্বান জা‌নি‌য়ে‌ছেন সি‌টি মেয়র সের‌নিয়াবাত সা‌দিক আব্দুল্লাহ।

তি‌নি শিক্ষার্থী‌দেরকে দুর্ঘটনার ঘটনায় সুষ্ঠ বিচা‌রের আশ্বাস দেন। পাশাপা‌শি যে দাবি দাওয়া র‌য়ে‌ছে তা নি‌য়ে সোমবার শিক্ষার্থী ও বাস মা‌লিক-শ্র‌মিক নি‌য়ে বৈঠ‌কে বসবে।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে একাত্মতা পোষণ করে মেয়র বলেন, আমিও চাই দোষীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি। তবে সহিষ্ণু আন্দোলনের মাধ্যমে তা নিশ্চিত করতে হবে।

এ‌দিকে সা‌দিক আব্দুল্লাহর আশ্বা‌সের পরিপ্রে‌ক্ষি‌তে শিক্ষার্থী সড়ক অব‌রোধ তু‌লে নি‌য়ে ক্যাম্পা‌সে ফি‌রে যায় এবং দুপুর সোয়া ১২টায় বন্ধ থাকা বাস চলাচলও স্বাভা‌বিক ক‌রে‌ছে শ্র‌মিকরা।

অপর‌দি‌কে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে একাত্মতা পোষণ করেছেন বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) বরিশাল জেলার সদস্য সচিব ডা. মনিষা চক্রবর্তী।

আ‌ন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানায়, বরিশাল সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহর আশ্বসে তিনদিনের জন্য নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থী‌দের অবস্থান কর্মসূচি প্রত্যাহার করা হ‌য়েছে।

বেলা সোয়া ১২টায় বাস শ্র‌মিক নেতা জাহা‌ঙ্গীর হো‌সেন জা‌নান, চাল‌ককে থানায় আট‌কে নির্যাতন না ক‌রে আদাল‌তে দ্রুত পাঠানোর দাবি জানি‌য়ে‌ শ্র‌মিকরা বাস চলাচল বন্ধ ক‌রে দেয়। যা দ্রুত কার্যক‌রের আশ্বা‌সে শ্র‌মিকরা কা‌জে ফি‌রে‌ছেন। ফ‌লে দূরপাল্লা ও অভ্যন্তরীণ রুটে বাস চলাচল করছে।

বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ও‌সি) আব্দুর রহমান মুকুল জানান, শ্র‌মিক‌দের সমস্যা আ‌গেই সমাধান করা হ‌য়ে‌ছি‌লো। প‌রে সি‌টি মেয়র ও প্রশাস‌নের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা‌দের হস্ত‌ক্ষে‌পে শিক্ষার্থী‌দের বি‌ক্ষোভ ও সড়ক অব‌রোধ কর্মসূচি থে‌কে স‌রি‌য়ে নেওয়া হয়। তারা ক্যাম্পা‌সে ফি‌রে গে‌ছেন। এখন বাস টা‌র্মিনা‌লের প‌রি‌স্থি‌তি স্বাভা‌বিক র‌য়ে‌ছে।’এদিকে ঘাতক বাস চালক জলিলকে আটক করেছে পুলিশ।
নরসিংদী : নরসিংদীর বেলাবতে স্কুলছাত্র রাব্বি মিয়া নিহতের প্রতিবাদে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করেছে শিক্ষার্থীরা।
আজ শনিবার সকালে দেড় ঘন্টাব্যাপী বেলাব উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা বারৈচা বাসস্ট্যান্ডে এলাকায় অবরোধ করে।

১১টা থেকে বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত অবরোধের ফলে মহাসড়কে সকলপ্রকার যানচলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় শিক্ষার্থীরা মহাসড়কের বারৈচা বাসস্ট্যান্ডে গোলচত্বর ও ফুটওভারব্রীজ নির্মাণসহ সড়ক দুর্ঘটনারোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানায়।

ঢাকা: ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে উল্টো পথে গিয়ে অনন্ত (১২) নামে এক শিক্ষার্থীকে পিষে দিয়েছে বনফুল পরিবহনের একটি বাস। এসময় ঘটনাস্থলেই ওই শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়। শনিবার (২৩ মার্চ) দুপুর ২টার দিকে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার মেদিনীমণ্ডল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত শিক্ষার্থী মেদিনীমণ্ডল আনোয়ার চৌধুরী উচ্চবিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র ও উত্তর মেদিনীমণ্ডল এলাকার মালয়েশিয়া প্রবাসী রাজা মিয়ার ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের মেদিনীমণ্ডল এলাকা দিয়ে রাস্তা পার হচ্ছিল অনন্ত। এ সময় বেপরোয়া বনফুল পরিবহনের (ঢাকা মেট্রো-ব-১৫-২১৮০) যাত্রীবাহী বাসটি উল্টো পথে গিয়ে শিক্ষার্থী অনন্তকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারায় সে।

LEAVE A REPLY