শহীদ জিয়ার সমাধিতে মহাসচিবের সামনেও ফ্লপ মহানগর বিএনপি!

আপডেট: নভেম্বর ১৫, ২০১৯
0

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির ১৫১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণাকে কেন্দ্র করে দলটির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়ে কমিটির কার্যক্রম শুরু করা হয়। এই কর্মসূচিতে দলটির কেন্দ্রীয় পর্যায়ের নেতারাও উপস্থিত ছিলেন। তবে কমিটির মাত্র ৫০/৬০ জন উপস্থিত ছিলেন কর্মসূচিতে।

এতে করে ফের নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির কর্মসূচি ফ্লপ হয়েছে। যেকারণে অনেকে বলছেন, জিয়ার সমধিতে শ্রদ্ধা জানাতেও দলকে সুসংগঠিত করতে ব্যর্থ হয়েছে শীর্ষ পদধারী নেতারা।

বুধবার (১৩ নভেম্বর) বেলা ১১টায় শের-ই বাংলা নগরে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির উদ্যোগে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা শেষে দোয়া করেন নেতৃবৃন্দরা। এসময় কেন্দ্রীয় পর্যায়ের নেতা ছাড়া নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সম্পূর্ণ কমিটির নেতাকর্মীকে সেখানে দেখা যায়নি। এতে উপস্থিতদের মধ্যে নানা গুঞ্জন শোনা যায়।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট আবুল কালাম, সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল, সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট জাকির হোসেন, নুরুল ইসলাম সরদার, হাজী নুরু উদ্দিন, আয়শা সাত্তার, অ্যাডভোকেট রফিত আহম্মেদ, যুগ্ম-সম্পাদক আব্দুস সবুর খান সেন্টু, আওলাদ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবু আল ইউসুফ খান টিপু, আবুল কাউছার আশা, কোষাধক্ষ সোলেয়মান সরকার, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী রুবায়েত হাসান সায়েম সহ প্রমুখ।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির এই উপস্থিতি দেখে অনেকে বলছেন, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতেও দলকে সুসংগঠিত করতে ব্যর্থ হয়েছেন কমিটির দায়িত্বে থাকা নেতারা। ১৫১ জনের বিশাল কমিটিতে মাত্র ৫০-৬০ জন উপস্থিত হয়েছেন। দলটির নেতৃত্বের অভাব ও দুর্বলতার ফলে কমিটির নেতাকর্মীরা বিচ্ছিন্ন হয়ে আছে। তারা কোন অবস্থাতেই দলকে সুসংগঠিত করতে পারছেনা। যেকারণে দ্বন্দ্ব বিভক্তিও রয়েছে নেতাকর্মীদের মধ্যে। তাইতো কর্মসূচি হলে নেতাকর্মীদের ভাটা পড়ে।

জানা গেছে, আর আগেও গত ১১ নভেম্বর মহানগর বিএনপির পূর্ণাঙ্গ কমিটির পরিচিতি সভায় একই চিত্র দেখা গেছে। সেখানেও এক-তৃতীয়াংশ নেতাকর্মীদের উপস্থিতির মধ্য দিয়ে কর্মসূচি ফ্লপ হয়েছে। সেখানে দলটির সভাপতি আবুল কালামের মুখে দ্বন্দ্ব বিভক্তির কথা শোনা গেছে। এক্ষেত্রে বিএনপির কর্মসূচি ফ্লপ হওয়ার জন্য নেতাকর্মীদের সংগঠিত করার অভাবকে দায়ী করা হচ্ছে।
সংশ্লিষ্টরা বলছেন, রাজধানীতে কোন রকমের পুলিশি বাধা ছিলনা, ক্ষমতাসীনদের চোখ রাঙানি ছিলনা। তবে সেখানে কেন সদ্য ঘোষিত পূর্ণাঙ্গ কমিটির সকল সদস্যরা উপস্থিত ছিলনা। এর দায়ভার কমিটির দায়িত্বশীল শীর্ষ পদের নেতারা কিছুতেই এড়াতে পারেনা। শুধু এই কর্মসূচিই নয় বিগত দিনেও বিএনপির কর্মসূচি ফ্লপ হওয়ার দায়ভারও তাদের উপর বর্তায়।

এম আর কামাল

LEAVE A REPLY