শাহ আলমগীরের স্মরণ সভা : ‘সাংবাদিকতাকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যাওয়ার অবদান তার’

আপডেট: মার্চ ২২, ২০১৯
0

 কীর্তিমান সাংবাদিক প্রয়াত শাহ আলমগীরের সাথে স্মৃতি নেই এমনসংবাদকর্মীর সংখ্যা খুবই কম।তাই তার সাথে কাটানো সময়ের নানা আনন্দবেদনার স্মৃতি তুলে ধরতে জাতীয় প্রেসক্লাবে স্মরণ সভার আয়োজনকরে বাংলাদেশ সম্প্রচার সাংবাদিক কেন্দ্র– বিজেসি। শাহ আলমগীরেরস্মরণে প্রার্থনা সঙ্গীত  এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। প্রদর্শন করাহয় তার কর্মময় জীবনের একটি ভিডিও চিত্র। এরপর শাহ আলমগীরেরনানা অবদানের কথা তুলে ধরেন সহকর্মী,সহযোদ্ধা  বন্ধুরা। তারা বলেন,শাহ আলমগীর সাংবাদিকদের অধিকার আদায়ে যেমন সোচ্চার ছিলেনতেমন এদেশে সাংবাদিকতাকে একটি অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যাওয়ার জন্যপরিশ্রম করে গেছেন জীবনের শেষ সময় পর্যন্ত।তিনি সততা  নিষ্ঠার যেপরিচয় দিয়ে গেছেন তা নতুন প্রজন্মের সাংবাদিকদের জন্য অনুকরণীয়।

বিজেসির চেয়ারম্যান  মাছরাঙা টেলিভিশনের বার্তা প্রধান রেজওয়ানুলহকের সভাপতিত্বে স্মরণ সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন সংস্থার সদস্য সচিব একাত্তর টেলিভিশনের বার্তা প্রধান শাকিল আহমেদ।

 অনুষ্ঠানটি পরিচালনাকরেন বিজেসির ট্রাস্টি রাশেদ আহমেদ।

 অনুষ্ঠানে স্মৃতি চারণ করেন,বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম,বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম আজাদ,প্রধান তথ্য কমিশনার মোর্তুজা আহম্মদদৈনিক যুগান্তরের সম্পাদকসাইফুল আলমএকাত্তর টেলিভিশনের প্রধান সম্পাদক  ব্যবস্থাপনাপরিচালক মোজাম্মল বাবুদৈনিক সংবাদের সম্পাদক খন্দকারমুনীরুজ্জামানপ্রথম আলোর সহসম্পাদক সোহরাব হাসানদৈনিকসমকালের সহ সম্পাদক অজয় দাশ গুপ্তজাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণসম্পাদক ফরিদা ইয়াসমীন এবং শাহ আলমগীরের সহধর্মীনী ফৌজিয়াবেগম।

অনুষ্ঠান শেষে শাহ আলমগীরের পরিবারের হাতে বিজেসির পক্ষ থেকেএকটি জলছবি স্মৃতি হিসেবে তুলে দেন জিটিভির প্রধান সম্পাদক বিজেসির অন্যতম ট্রাস্টি সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা।

LEAVE A REPLY