সন্তানের মতামত নেয়ার প্রয়োজন কেন!!

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৯
0

সন্তানকে বড় করতে মা বাবাকে অনেক ধরনের কাজই করতে হয়। কিন্তু সম্প্রতি বিভিন্ন গবেষণা দেখা গেছে, তাদের ভাল করতে গিয়ে বাবা-মা খুব বেশি কড়া, সারাক্ষণ নিয়ন্ত্রণ করতে চান সন্তানদের। এতে সন্তানরাই দ্রুত ইন্টারনেট আসক্ত হয়ে পড়ে। তাদের বেশির ভাগ কারো সাথে মিশতে পারে না, খেলতে শেখে না। তারা অন্য জগৎ খুঁজে নেয় স্বস্তির জন্য।

এমন কি সন্তানের মতামত না নিয়েই অনেক কিছু তাদের উপর চাপিয়ে দেয়া হয়। মা-বাবার চাপিয়ে দেয়ার প্রবণতাটা সবচেয়ে বেশি চোখে পড়ে সন্তানের পড়াশোনা এবং ক্যারিয়ারের ক্ষেত্রে। অনেক মা-বাবাই সন্তান ছোট থাকতেই ঠিক করে ফেলেন সে ভবিষ্যতে কি হবে।

তাদের কথাগুলোর মধ্যে সন্তানের ইচ্ছের কোনো জায়গাই থাকে না। মা বাবার ইচ্ছা পূরণের জেদ সন্তানের স্বপ্নকে ভেঙে ফেলে। তাই ছোট থেকে সন্তানের সামনে জীবনের লক্ষ্য বেঁধে দেবেন না।

ছোট বয়সে তাদের ইচ্ছা অদ্ভুত লাগতে পারে। কিন্তু তা নিয়ে হাসাহাসি করবেন না বরং তাকে শেখান মন দিয়ে করা প্রত্যেকটি কাজই গুরুত্বপূর্ণ। সন্তানকে স্বাধীন ভাবে চিন্তা করতে দিন এতেই সে নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারবে। বাচ্চাদের শাসন প্রয়োজন ঠিকই, কিন্তু তার সাথে স্নেহও দরকার। আর দরকার ছোট থেকেই তার ইচ্ছে ও মতামতগুলোকে গুরুত্ব দেয়া।

মা-বাবার ইচ্ছেটাই শেষ কথা এমনটা সম্পূর্ণ ভুল ধারণা। তার ইচ্ছেগুলোকে গুরুত্ব না দেয়া হলে একটা সময়ে জেদ জন্মাতে পারে। ফলে সে মা বাবার অপছন্দের কাজটিই করে। এমন হলে সন্তান সারা জীবন সিদ্ধান্তহীনতার সমস্যা থাকবে। তাই তার কথাও শুনতে হবে। সব সিদ্ধান্ত নিজেই নেবেন না।

ছোটখাটো বিষয়ে সন্তানের মতামত নিন তার পছন্দকে গুরুত্ব দিন। যেমন বার্থডে কেক কেমন হবে, কোন বন্ধুদের সে ডাকতে চায় জন্মদিনে? তার পছন্দের খাবার কিনে দিন। তবে সব কিছুই তার পছন্দ মত নয়, আপনাদের সাধ্যের কথাও ভাবতে হবে।

 

বিডি র্জানাল

LEAVE A REPLY