সরকারের বিরুদ্ধে কিছু বলি না, শুধু শুনি এটিএম কামাল

আপডেট: মার্চ ২১, ২০১৯
0

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল বলেছেন, আমরা এখন সরকারের বিরুদ্ধে কিছু বলি না, শুধু শুনি। বাজারে গেলে শুনি, হাটে গেলে শুনি, ঘাটে গেলে শুনি, সবজিওয়ালা বলে, রিকশাওয়ালা বলে, বাসের ড্রাইভার বলে, মাঠের কৃষক বলে- আমাদের আর বাঁচার উপায় নাই।
বুধবার (২০ মার্চ) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির মূল্য বৃদ্ধির চক্রান্তের প্রতিবাদে আমরা নারায়ণগঞ্জবাসী সংগঠনের আয়োজিত গণসমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, বৈরি একটি সময় আমরা পার করছি। আমি যখন ঘর থেকে বের হচ্ছি তখন আমার স্ত্রী আমাকে বললো, তুমি সরকারের বিরুদ্ধে কোন কথা বলবা না। আমি একজন সরকার বিরোধী নেতা কিন্তু এখানেও আমি সেরকম বক্তব্য দিলে তো আমাকে আমন্ত্রণ যারা জানিয়েছে তারা বিব্রতবোধ করবো। সেটুকু জ্ঞান আমার আছে।
বিএনপির এই নেতা বলেন, কিছুদিন আগে আমার শালিকা বললো, দুলাভাই আপনাকে ভর্তা, ভাত খাওয়াবো। ভর্তা-ভাত খাবার সময় হচ্ছে সকালে। কিন্তু সে আমাকে দুপুরে আসতে বলেছে। কারণ সকালে গ্যাস থাকে না, দুপুরে কিছুটা আসে। গ্যাস না থাকলেও বিল কিন্তু নিয়ে যাচ্ছে। নারায়ণগঞ্জের অনেক এলাকাতে গ্যাস নাই কিন্তু বিল ঠিকই নিয়ে যায়।
তিনি আরো বলেন, আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীও অসহায়। তার পিতা বলেছিলেন, কেউ পায়, সোনার খনি, তেলের খনি, হীরার খনি আর আমি পাইছি চোরের খনি। এই চোরের খনি যখনই সুযোগ পায় লুটপাট করে খায়। এটা আমার কথা না। এটা স্বাধীনতার স্থপতি প্রয়াত রাষ্ট্রপতি শেখ মুজিবুর রহমানের কথা। এখন ব্যাংক থেকে হাজার কোটি টাকা চুরি হয়ে যায়, কয়লা খেয়ে ফেলে। এই ভর্তুকি কি কোথা থেকে আসবে? তাই প্রধানমন্ত্রী মানুষের পকেটে হাত দেন।
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, গুগলে দেখলাম, দেশে ২১ লক্ষ সরকারি কর্মচারি। বিগত নির্বাচনে এতো এতো পরিশ্রম করেছে তাদেরও তো ভর্তুকি দিতে হয়েছে। দিনের কাজ রাতে করেছে সে টাকা দিতে হবে না। তাহলে সে টাকা কে দিবে? আপনি দেবেন, আমি দেবো।
তিনি আরও বলেন, আমরা হয়তো জনগণের অধিকার আদায়ে ব্যর্থ, আমাদের ভূমিকা আমরা রাখতে পারছি না। আমরা বুকের তাজা রক্ত দিতে ভয় পাই, জেলে যেতে ভয় পাই। কিন্তু বাংলাদেশের জনগণ অবশ্যই এই মহাচুরির জন্যে, জনগণের অধিকারের জন্যে হঠাৎ একদিন রুখে যায়। সেদিন এই চোরের দল পালাবার পথ খুঁজে পাবে না।
আমরা নারায়ণগঞ্জবাসী সংগঠনের সভাপতি নুরুদ্দীন আহমেদের সভাপতিত্বে গণসমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন, জেলা নাগরিক কমিটির সভাপতি এবি সিদ্দিক, নাগরিক সচেতন সমাজের আহ্বায়ক বদরুল হক, জেলা সুশীল সমাজ সংগঠনের সভাপতি হাসমত উল্লাহ, জেলা বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত টিপু, মহানগর জাসদের সাধারণ সম্পাদক মোসলেহউদ্দীন আহম্মেদ, আমরা নারায়ণগঞ্জবাসীর ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আরমান আলী প্রমুখ।

এম আর কামাল

LEAVE A REPLY