সামগ্রিক উন্নয়ন নিশ্চিত করতে লিঙ্গ বৈষম্য কমিয়ে আনতে হবে …… এলজিআরডি মন্ত্রী

আপডেট: নভেম্বর ৩০, ২০১৯
0

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম বলেছেন, আমাদের মোট জনসংখ্যার অর্ধেক
নারী অর্ধেক পুরুষ। নারীরা যদি অর্থনৈতিকভাবে সাবলম্বী বা উপযুক্ত শিক্ষায় শিক্ষিত হতে না পারে তবে আমাদের অভিষ্ট লক্ষ্য পূরণ করা সম্ভব হবে না। দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন নিশ্চিত করতে লিঙ্গ বৈষম্য কমাতে হবে।

আজ বিকেলে রাজধানীর গুলশান ইয়ুথ ক্লাব মাঠে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন আয়োজিত ২ দিন ব্যাপী নারী, শিশু ও প্রতিবন্ধীদের উপর নির্যাতন বন্ধ ও অধিকার রক্ষা সংক্রান্ত প্রচারাভিযানের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

“নারী-পুরুষ সমতা, রুখতে পারে সহিংসতা” এই স্লোগানকে সামনে রেখে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন ২ দিন ব্যাপী “সিক্সটিন ডেজ অব এ্যাক্টিভিজম” শীর্ষক এ প্রচারাভিযানের আয়োজন করে।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের আর্থ সামাজিক উন্নতির সাথে মূল্যবোধের উন্নতি হচ্ছে। আমাদের মাথাপিছু আয় বাড়ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলেছি। আর তার সুযোগ্য কণ্যা সায়মা ওয়াজেদ পুতুল দীর্ঘদিন ধরেই এই সুবিধা বঞ্চিত ও প্রতিবন্ধীদের নিয়ে কাজ করছেন, বিশ্বের বুকে দেশের জন্য সুনাম কুড়িয়েছেন, দেশকে সম্মানীত করেছেন। তারই প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সহযোগিতায় দেশে বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি পর্যায়ে প্রতিবন্ধীদের নিয়ে কাজ শুরু হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, সরকার নারী-শিশু ও প্রতিবন্ধীদের অধিকার নিশ্চিত করার জন্য নানামূখী কার্যক্রম হাতে নিয়েছে, এখন জনসাধারনের সচেতনতাই পারে এর সুফল নিশ্চিত করতে।

সভাপতির বক্তব্যে ডিএনসিসি মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম বলেন, আমরা সকলের জন্য নিরাপদ ও বাসযোগ্য একটি নগরী গড়ে তোলার জন্য কাজ করছি। এই “16 Days of Activism” এর মাধ্যমে নারী-শিশু ও বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ব্যক্তিদের অধিকার রক্ষায় সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধি পাবে।

অনুষ্ঠানে অন্যানের মধ্যে সেলিমা আহমাদ এমপি, নাহিদ ইজহার খান এমপি, শবনম জাহান এমপি, অপরাজিতা হক এমপি, বাংলাদেশে নিযুক্ত ডেনমার্কের রাষ্ট্রদূত উইনি এসট্রাপ পিটারসেন, ক্রিকেট তারকা তাসকিন আহমেদ, ডিএনসিসির কাউন্সিলরবৃন্দ, মন্ত্রণালয় ও ডিএনসিসির উর্দ্ধতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন

LEAVE A REPLY