হিন্দুর সঙ্গে প্রেম, গাছের সঙ্গে বেঁধে মুসলিম তরুণীকে পাশবিক নির্যাতন

আপডেট: অক্টোবর ৯, ২০১৮

হিন্দুর সঙ্গে প্রেম, গাছের সঙ্গে বেঁধে মুসলিম তরুণীকে পাশবিক নির্যাতন

এক মুসলিম তরুণীকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্মম নির্যাতন করা হয়েছে। অপরাধ?-হিন্দু ছেলের সঙ্গে প্রেম করে পালিয়ে গিয়েছিল এই তরুণী। তার পরিবার ও এলাকাবাসী তাকে ওই পাশবিক শাস্তি দিয়েছে।
ভারতের বিহার রাজ্যের নাওয়াদায় এই অমানবিক ঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, পরিবারের মতের অবাধ্য হয়ে অন্য ধর্মের ছেলের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ার অপরাধে ১৮ বছর বয়সী ওই তরুণীক পাঁচ ঘণ্টা ধরে গাছের সঙ্গে বেঁধে রেখে পেটানো হয়।
পরিবারের অভিযোগ, সে অন্য ধর্মের ছেলের সঙ্গে পালিয়ে বিয়ে করে পরিবার এবং সমাজের জন্য অসম্মানে বয়ে এনেছে।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম বলছে, একই গ্রামের রুপেস কুমারের সঙ্গে ওই তরুণী পালিয়ে যায়।

কিন্তু তার পরিবার এটা মেনে নিতে পারেনি। ফলে পরিবার তাদের খুঁজে নিয়ে এসে বিচারের সম্মুখীন করে।

মুসলিম সমাজের বদনাম হওয়ায় তাকে ওই শাস্তি দেয়া হয়।

একজন প্রত্যক্ষদর্শী ঘটনাটি মোবাইল ফোনে ধারণ করেন। ভিডিওতে দেখা যায়, তরুণীটি মাটিতে লুটিয়ে পড়লে আবার তাকে গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখা হয়; তার চারপাশে মানুষ ভিড় করে দাঁড়িয়ে বিষয়টি দেখছে।
আরেকটি ভিডিও ক্লিপে দেখা যায়, ওই তরুণীকে এমনভাবে গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখা হয়েছে যাতে সে নড়াচড়া করতে না পারে।
সূত্র: ডেইলি মেইল