৪০ বন্দির সঙ্গে সাধারণ ওয়ার্ডের মেঝেতে ব্যারিস্টার মইনুল

আপডেট: অক্টোবর ২৩, ২০১৮

৪০ বন্দির সঙ্গে সাধারণ ওয়ার্ডের মেঝেতে ব্যারিস্টার মইনুল
মানহানির মামলায় সোমবার রাতে গ্রেপ্তার ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের জামিনের আবেদন নাকচ আজ মঙ্গলবার তাকে কারাগারে পাঠায় ঢাকার আদালত।

মাসুদা ভাট্টিকে কটূক্তির অভিযোগে এ মামলা দায়ের হয়।

জানা গেছে, ঢাকার কেরানীগঞ্জের কারাগারে নেয়ার পর সাধারণ ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে তত্ত্ববধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা মইনুল হোসেনকে।

খবর নিয়ে জানা গেছে, ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে কারাগারে যে ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে সেই ওয়ার্ডের নাম ‘আমদানি ওয়ার্ড’।

সেখানে মইনুল ছাড়া আরও ৪০ জন বন্দী রয়েছেন।

ওই ওয়ার্ডে কোনো খাট-চেয়ারের ব্যবস্থা নেই।

ইংরেজি দৈনিক নিউ নেশনের সম্পাকমণ্ডলীর সভাপতি ব্যরিস্টার মইনুল হোসেনের বিষয়ে আদালতের কোনো নির্দেশনা না থাকায় তাকে আমদানি ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কারা কর্মকর্তারা।

সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে কটূক্তির ঘটনায় রংপুরে করা একটি মানহানির মামলায় সোমবার রাতে ঢাকার উত্তরা থেকে মইনুলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

সরকারবিরোধী জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে সক্রিয় মইনুলকে গ্রেপ্তার করা হয় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতা ও জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রবের বাড়ি থেকে।

মঙ্গলবার দুপুরে মইনুলকে ঢাকার আদালতে নেওয়া হয়। তার পক্ষে জামিনের আবেদন হলেও তা নাকচ করে বিচারক কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।