আ’লীগের দুই কাউন্সিলরপ্রার্থীর মধ্যে সংঘর্ষ আহত ২৫

আপডেট: জানুয়ারি ১৩, ২০২১
0

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ : রূপগঞ্জে আসন্ন পৌর সভার নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর কর্মী সমর্থকদের মাঝে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এসময় উভয় পক্ষ থেকে ইট পাটকেল ও গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে উভয়পক্ষের অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশংকাজনক।

এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুই কাউন্সিলর প্রার্থীকেই আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারী) সন্ধ্যা থেকে রাত পর্যন্ত উপজেলার তারাবো পৌরসভার ৭ নং ওয়াডের নোয়াপাড়া এলাকায় দফায় দফায় এই সংঘাতের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আগামী ১৬ জানুয়ারী তারাবো পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার সন্ধ্যা কাউন্সিলর প্রার্থী ও বর্তমান কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন ও আরেক প্রার্থী রুহুল আমিন মিছিল শোডাউনের আয়োজন করে।

সন্ধ্যায় উভয় পক্ষের মিছিল নোয়াপাড়া মহিলা মাদ্রাসার সামনে মুখোমুখি হলে উভয়পক্ষের লোকেরা উত্তেজিত হয়ে উঠে। এক পর্যায়ে উভয়পক্ষ ইট-পাটকেল ছুড়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।
সন্ধ্যা থেকে রাত সাড়ে ৪টা পর্যন্ত দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় আগ্নেয়াস্ত্র বের করে একপক্ষ আরেক পক্ষকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা আরো জানায়, উভয়পক্ষ পাশের চনপাড়া বস্তি থেকে প্রচুর পরিমান বহিরাগত লোকের সমাগম ঘটায়। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের মজিবর রহমান, ইউছুফ, তানভীর, মতিন,বস্তির সাদ্দাম, আরজ আলী, সরাফত, মোমেন, রাজু, সাহেদ, তারিক, মোবারক, জসিম, ইলিয়াছ, সোবাহান, শফিকুল, মিয়াজানসহ অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে টেক্সটাইল শ্রমিক মজিবরের অবস্থা আশংকাজনক।
রূপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মাহমুদুল হাসান জানিয়েছেন, সংঘাতের খবর পাওয়ার পর তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে সে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন আছে। হামলার ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য উভয় প্রার্থীকে পুলিশী হেফাজতে রাখা হয়েছে। পরবর্তিতে ঘটনা পর্যালোচনা করে মামলা রুজু করা হবে।