কাশিমপুর কারাগার থেকে পালানোর দুই বছর পর কয়েদি আটক

আপডেট: জুন ২৩, ২০২২
0

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ থেকে মই বেয়ে পালিয়ে যাওয়া যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত কয়েদি আবু বক্কর সিদ্দিককে (৩৭) আটক করেছে পুলিশ। শরীয়তপুর পদ্মা সেতু দক্ষিণ থানাধীন নাওডোবা (মিনাকান্দি) চৌরাস্তা এলাকা থেকে তাকে আটক করে পুলিশ।

বৃহষ্পতিবার শরীয়তপুর পদ্মা সেতুর দক্ষিণ থানার ওসি শেখ মোস্তাফিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আটক আবু বক্কর সিদ্দিক (৩৭) সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার চন্ডিপুর গ্রামের মৃত কেছের আলীর ছেলে।

শরীয়তপুর পদ্মা সেতুর দক্ষিণ থানার ওসি শেখ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধন অনুষ্ঠানের নিরাপত্তা রক্ষায় পুলিশ এলাকায় সার্বক্ষনিক দায়িত্বে রয়েছে। বুধবার দুপুরে পদ্মা সেতু দক্ষিণ থানার নাওডোবা মিনাকান্দি চৌরাস্তা এলাকায় আবু বকর ঘুরাফেরা করার সময় তার চলাফেরায় পুলিশের সন্দেহ হয়। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে কাশিমপুর কারাগার থেকে পলায়নের কথা বেরিয়ে আসে। পরে খোঁজ নিয়ে আবু বক্কর সিদ্দিক একটি হত্যা মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামি এবং কারাগার থেকে পলাতক বলে নিশ্চিত হওয়া যায়। আবু বক্কর সিদ্দিককে দুপুরের পর শরীয়তপুর আদালতের মাধ্যমে শরীয়তপুর জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এর জেল সুপার আমিরুল ইসলাম জানান, ২০২০ সালের ৬ আগস্ট গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ থেকে মই বেয়ে দেয়াল টপকে পালিয়ে যায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত কয়েদি আবু বক্কর সিদ্দিক। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়। ২০১২ সাল থেকে তিনি এ কারাগারে বন্দি ছিলেন। আবু বক্কর সিদ্দিককে একটি হত্যা মামলায় মৃত্যুদন্ডের আদেশ দেন আদালত। পরে উচ্চ আদালতে আপীল করলে তার সাজা কমিয়ে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দেয়া হয়। কারাগার থেকে পালিয়ে যাওয়ার ওই ঘটনায় কারাগারের দুই কর্মকর্তা ও চার কারারক্ষীর বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়।

###
মোঃ রেজাউল বারী বাবুল
গাজীপুর।
২৩/০৬/২০২২ ইং।