টানা নবমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস

আপডেট: জুলাই ২৭, ২০২০
0

ডেস্ক রিপোর্ট:

জিতলেই শিরোপা- আগের ম্যাচেও একই সমীকরণ নিয়ে মাঠে নামলেও উদিনেসের কাছে হেরে ‍শিরোপা উৎসব করা হয়নি জুভেন্টাসের। এবার আর কোন ভুল করেনি মাউরিসিও সারির দল। রোববার রাতে সাম্পদোরিয়োকে ২-০ গোলে হারিয়ে ইতালিয়ান সিরি আ’র ৩৬তম শিরোপা ঘরে তুলেছে বিয়াঙ্কোনেরিরা।

টানা নয়বারের মতো ইতালির শীর্ষ লীগ জিতে তারা গড়েছে অনন্য এক রেকর্ড। ইউরোপের শীর্ষ পাঁচ লীগে টানা নয় শিরোপা জয়ের একমাত্র কীর্তি কেবল জুভেন্টাসের। টানা আটবার জার্মান বুন্দেসলিগার শিরোপা জিতে জুভেন্টাসের পেছনেই রয়েছে বায়ার্ন ‍মিউনিখ।

ঘরের মাঠ আলিয়াঞ্জ স্টেডিয়ামে শুরুতে বিবর্ন ছিল জুভেন্টাস। স্বাগতিকরা কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পায় প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে। বিরতির আগে সাম্পদোরিয়ার বক্সের ঠিক বাইরে ফ্রিকিক পেয়েছিল জুভেন্টাস।

মিরালেম পিয়ানিচ সরাসরি গোলে বল না মেরে বক্সের ভেতর থাকা রোনালদোকে দিয়েছিলেন পাস। সাম্পদোরিয়ায় তাতে বোকা বনে যায়। রোনালদো এরপর ডান পায়ের নিচু শটে লীগের ৩১ তম গোল করে জুভেন্টাসকে এগিয়ে দেন। জুভেন্টাসের হয়ে লীগে এক মৌসুমে কোনো খেলোয়াড়ের করা সর্বোচ্চ গোলও ৩১। রোনালদো ছুঁয়েছেন ৮৬ বছর পুরোনো সেই রেকর্ড। লীগে এখনও বাকি দুই ম্যাচ। লকডাউনের পর থেকে হিসেব করলে ১০ গোল করা রোনালদো ইউরোপের শীর্ষ ৫ লীগের সর্বোচ্চ গোলদাতাও। জুভেন্টাসের ইতিহাসটা নতুন করে লেখার অপেক্ষাতেই আছেন রোনালদো।

দ্বিতীয়ার্ধে সাম্পদোরিয়ার রক্ষণে চাপ দিতে থাকা জুভেন্টাস ব্যবধান দ্বিগুণ করে ৬৭তম মিনিটে। রোনালদোর ডান পায়ের কোনাকুনি শট গোলরক্ষক ঝাঁপিয়ে ফেরালেও পুরোপুরি বিপদমুক্ত করতে পারেননি। সামনে থাকা বের্নারদেস্কি সুযোগ কাজে লাগান অনায়াসে। ৮৪তম মিনিটে রোনালদোর স্পট কিক ক্রসবার কাঁপিয়ে ফিরে এলে ব্যবধান আর বাড়েনি। চলতি সিরি আ’য় পেনাল্টি শটে ১২ গোল করা পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড এই প্রথম মিস করলেন। স্পটকিক থেকে জালের দেখা পেলে শীর্ষ গোলদাতার লড়াইয়ে আরেকটু এগিয়ে যেতে পারতেন। ৩৪ গোল নিয়ে সবার উপরে রয়েছেন লাজিওর ইতালিয়ান স্ট্রাইকার সিরো ইমোবিলে।

LEAVE A REPLY