ড্রোন এবং সুড়ঙ্গের মাধ্যমে দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে, আমরা মোকাবিলায় প্রস্তুত: অমিত শাহ

আপডেট: জুলাই ১৭, ২০২১
0

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেছেন, ড্রোন এবং সুড়ঙ্গের মাধ্যমে দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে, আমরা প্রত্যেকটি চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় প্রস্তুত রয়েছি। তিনি আজ (শনিবার) সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখার সময়ে ওই মন্তব্য করেন।

আজ বিএসএফের ওই অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রসচিব অজয় ভাল্লা, গোয়েন্দা ব্যুরোর পরিচালক অরবিন্দ কুমার ও অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।
এ সময়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ নাম না করে প্রতিবেশি পাকিস্তানকে বার্তা দেন বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

অমিত শাহ বলেন, ‘যেদেশের সীমান্ত নিরাপদ, সে দেশ নিরাপদ। আপনারা দেখেছেন ড্রোন পাঠানো হচ্ছে। টানেল তৈরি করা হয়েছিল, তবে আমরা এই চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবিলার জন্য প্রস্তুত রয়েছি। দেশের বিরুদ্ধে করা প্রতিটি ষড়যন্ত্রের জবাব দেওয়া হচ্ছে। বিএসএফ প্রধান রাকেশ আস্থানা এখানে বসে আছেন। তাঁর টিম টানেলগুলো সন্ধান করে এবং সমস্ত বিশ্লেষণ করার পরে, কত দিন আগে টানেল তৈরি হয়েছে, কত লোক প্রবেশ করত, এসব অনুসন্ধান করে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সমস্যা নিরসন করছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ জওয়ানদের আত্মত্যাগ প্রসঙ্গে বলেন, ‘যারা সর্বোচ্চ আত্মত্যাগ স্বীকার করেছেন তাদের আমি অভিবাদন জানাচ্ছি। গোটা দেশ জানে যে আপনারা সজাগ হয়ে দেশের সীমান্ত রক্ষা করছেন, সে কারণেই আজ দেশটি গণতন্ত্রের দ্বারা গৃহীত উন্নয়নের পথে এগিয়ে চলেছে। সেই ত্যাগস্বীকারগুলো কখনই ভোলা যায় না।

জম্মু এয়ার স্টেশন ও সীমান্তবর্তী এলাকায় সাম্প্রতিক ড্রোন হামলার বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ড্রোনের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ডিআরডিও এবং অন্যান্য দেশীয় সংস্থা এ নিয়ে কাজ করছে। দেশীয় অ্যান্টি-ড্রোন সিস্টেম শিগগিরি সীমান্তে মোতায়েন করা হবে বলে আমার বিশ্বাস। দেশের একটি ভালো প্রতিরক্ষা নীতি দরকার ছিল, যা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দিয়েছেন। এবং এর মধ্যদিয়েই গণতন্ত্রের বিকাশ ও দেশের উন্নয়ন ঘটতে পারে বলেও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ মন্তব্য করেন। #