নরেন্দ্র মোদির শপথ গ্রহণ ২৯ মে, পদত্যাগ করছেন রাহুল গান্ধী

আপডেট: মে ২৩, ২০১৯
0

নরেন্দ্র মোদির দ্বিতীয়বারের মতো ভারতের প্রধানমন্ত্রী হওয়া এখন শুধু আনুষ্ঠানিকতা। আগামী ২৯ মে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করবেন তিনি। ভোটগণনা শেষে চূড়ান্ত ফল প্রকাশ হতে এখনো দেরি। তবে ভূমিধস জয়ে বিজেপির নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোটের সরকার গঠন নিশ্চিত হয়ে গেছে এরই মধ্যে।

টাইমস অফ ইন্ডিয়া জানায়, মোদির দলের এই বিজয়ের পূর্বাভাস মিলেছে প্রায় প্রতিটি বুথ ফেরত জরিপে। প্রতিটি জরিপেই মিলেছে বড় জয়ের পূর্বাভাস। চূড়ান্ত ভোট গণনাতেও তার প্রতিফলন মিলেছে।

বুথ ফেরত জরিপের পূর্বাভাস ছিল ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক জোট-এনডিএ ৫৪২টি আসনের মধ্যে ৩শ’র বেশি আসন পাবে। বাস্তবেও তাই দেখা গেছে। এখন পর্যন্ত গণনার অধীনে ৫৪২টি আসনের মধ্যে বিজেপি ও জোট (এনডিএ) পেয়েছে ৩৪৩টি, কংগ্রেস ও জোট (ইউপিএ) পেয়েছে ৯৩টি এবং জোটবিহীন দলগুলো পেয়েছে ১০৬টি আসন।

আর জোট বাদে বিজেপি একাই ১৯৪টি আসনে জিততে যাচ্ছে। যার ফলে বিজেপির জয় এবারের নির্বাচনে সুনিশ্চিত। ইতোমধ্যে জয়োৎসব শুরু করেছেন বিজেপির কর্মী-সমর্থকরা। বাদ্য বাজিয়ে নেচে গেয়ে দিল্লিতে দলের প্রধান কার্যালয়ে উৎসব করছেন তারা। পথচারীদের মাঝে মিষ্টিও বিতরণ করছেন তারা।

এদিকে, ভারতের সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে লজ্জাজনক হারের পর দেশটির বিরোধী দল কংগ্রেসের সভাপতির পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছেন রাহুল গান্ধী।

কংগ্রেস সূত্রের বরাত দিয়ে ইন্ডিয়া টুডে জানিয়েছে, মা সোনিয়া গান্ধীসহ কংগ্রেসের সিনিয়র নেতাদের একটি গ্রুপের কাছে তিনি বলেছেন- নির্বাচনে হারের পুরো দায় স্বীকার করেছেন তিনি। কাজেই দলীয় প্রধানের পদ থেকে তিনি সরে দাঁড়াতে চাচ্ছেন। তবে রাহুল গান্ধীর পদত্যাগের এই খবরকে উড়িয়ে দিলেন কংগ্রেসের মুখপাত্র রণদ্বীপ সিং।