নাসিক নির্বাচন : হাতি মার্কার সমর্থকদের তাড়িয়ে দেওয়া ও ২ কর্মীকে পুলিশ উঠিয়ে নেয়ার অভিযোগ

আপডেট: জানুয়ারি ১৬, ২০২২
0

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ : বহুল আলোচিত নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিভিন্ন কেন্দ্রে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকারের হাতি মার্কার সমর্থকদের তাড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ক্ষমতাসীনদের বিরুদ্ধে। তৈমূর আলমের প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল এসব অভিযোগ করেন। আজ রবিবার দুপুরে এ অভিয়োগ করেন।
তিনি বলেন, বন্দরের সোনাকান্দায় যুবদল নেতা মনোয়ার হোসেন শোখনকে পুলিশ ধরে নিয়ে গেছে। হাজীগঞ্জে আইটি স্কুলের সামনে থেকে হাতির ব্যাচ পড়া জামাল ও শাহ আলমকে নিয়ে গেছে পুলিশ। সেখানে নৌকার লোকজন প্রভাব বিস্তার করছে। সিদ্ধিরগঞ্জ পাওয়ার হাউজ কেন্দ্রে হাতির এজেন্টকে বের করে দিয়েছে। শহরের মর্গ্যান ও শিশুবাগ স্কুলে হাতি প্রতীকের লোকজনদের থাকতে দেওয়া হচ্ছে না। প্রায় বেশিরভাগ কেন্দ্রে এ সমস্যা হচ্ছে।
এদিকে তৈমূর আলম খন্দকার অভিযোগ করেন, বন্দরে আইভীর সুফিয়ান ঠিকাদারের নির্দেশে যুবদল নেতা শোখনকে আটকে রেখেছে পুলিশ।
নাসিক নির্বাচন : ১২টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে ৩৫ থেকে ৪০ শতাংশ : জেলা প্রশাসক
স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ বলেছেন, সিটি করপোরেশন নির্বাচনে এ পর্যন্ত ৩৫ থেকে ৪০ শতাংশ ভোট পড়েছে। আজ রবিবার দুপুর ১২টার দিকে নারায়ণগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজ কেন্দ্র পরিদর্শনের পর এ কথা বলেন তিনি।
জেলা প্রশাসক বলেন, ‘সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে ভোট হচ্ছে। প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে প্রার্থীদের এজেন্ট আছে। নারী ভোটারদের উপস্থিতি বেশি।’
তিনি আরও বলেন, ভোট গ্রহণ নিয়ে কোন মেয়র বা কাউন্সিলর প্রার্থী লিখিত বা মৌখিক অভিযোগ করেননি।
মোস্তাইন বিল্লাহ নির্বাচন উপলক্ষে নেওয়া ব্যবস্থা সম্পর্কে বলেন, ‘নির্বাচন সুষ্ঠু করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাঁচ হাজারের বেশি সদস্য নিয়োজিত আছেন। ৩৯ ম্যাজিস্ট্রেট কাজ করছেন। শেষ পযন্ত নির্বাচন সুষ্ঠু হবে, এ আশা করছি।’

এম আর কামাল
নারায়ণগঞ্জ
তারিখ ঃ ১৬-০১-২০২২