ভ্যান গঘের ছবিতে ১২৮ বছর ধরে লুকিয়ে ছিল ঘাস ফরিং!!

আপডেট: নভেম্বর ১১, ২০১৭
0

দেশ জনতা ডেস্ক:
বিশেষজ্ঞরা বলেন, ভিনসেন্ট ভ্যান গঘের আঁকা ছবিতে নাকি কোনও না কোনও রহস্য অবশ্যই লুকিয়ে থাকে। কিন্তু সম্প্রতি তাঁরই আঁকা একটি ছবির এমনই রহস্যোদ্ঘাটন হয়েছে, যা আঁকার সময় স্বয়ং ভ্যান গঘও বোধহয় জানতে পারেননি। ফলে সে রহস্য রহস্যই থেকে গিয়েছিল ১২৮ বছর ধরে! যা এ বার উন্মোচন করলেন পেইন্টিং কনজারভেটর মেরি স্যাফার।


১৮৮৯ সালে অলিভ গাছের একটি সিরিজ এঁকেছিলেন ভ্যান গঘ। সেই সিরিজের একটি ছবিতেই রহস্যের খোঁজ পান মেরি। আমেরিকার মিসৌরির নেলসন-অ্যাটকিন্স মিউজিয়াম অব আর্ট-এ ভ্যান গঘের ‘অলিভ ট্রি’ সিরিজের ছবিগুলো নিয়ে গবেষণা করছিলেন মেরি। হঠাত্ই তিনি দেখতে পান, সেই সিরিজের একটি ছবির মধ্যে পাতার মতো কিছু একটা আটকে রয়েছে। লাইভ সায়েন্স-কে দেওয়া সাক্ষাত্কারে মেরি জানান, প্রথমটায় ভেবেছিলেন যেহেতু গাছের ছবি, তাই আটকে থাকা বস্তুটি কোনও পাতা হতে পারে! কিন্তু মাইক্রোস্কোপ দিয়ে দেখতেই চমকে যান তিনি। তাঁর ধারণা ভুল ছিল। ওটা কোনও পাতা নয়, ছোট্ট একটা গঙ্গাফড়িং! যার মাথা ও পেটের নীচের অংশ গায়েব।

কিন্তু কী ভাবে এল এই পতঙ্গটি? গঙ্গাফড়িংটি উড়ে এসে ক্যানভাসে আটকে গেল, আর শিল্পী টেরও পেলেন না! চ্যাটচেটে রঙের মধ্যে আটকে যাওয়ার পরেও কেন পতঙ্গটির কোনও বাঁচার চিহ্ন পাওয়া যায়নি ওই ছবিতে? এই সবই ভাবাচ্ছে পেইন্টিং বিশেষজ্ঞদের। ভ্যান গঘ প্রায়ই আউটডোরে যেতেন আঁকার জন্য। ১৮৫৫ সালে ভ্যান গঘের লেখা একটি চিঠি উদ্ধৃত করে নেলসন-অ্যাটকিনসন মিউজিয়ামের বিশেষজ্ঞরা এ কথা জানিয়েছেন। গঙ্গাফড়িংটিকে নিয়ে যা-ই জল্পনা চলুক না কেন, ১২৮ বছর ধরে রহস্য হয়ে থাকাটাই এখন দর্শকের কাছে আকর্ষণের কারণ হয়ে উঠেছে বলে জানান মেরি।

LEAVE A REPLY