মুখ খুলল ভুটান, সীমান্ত পেরিয়ে কোনও গ্রাম তৈরি করেনি চীন

আপডেট: নভেম্বর ২১, ২০২০
0

ভুটানের জমিতে চীন একটি গ্রাম তৈরি করেছে, এই দাবি উড়িয়ে দিলেন ভারতে নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল ভেস্তপ নামগিয়াল। নয়াদিল্লিতে ভুটানের রাষ্ট্রদূত জানান, বৃহস্পতিবার ভারতের কয়েকটি সংবাদপত্র ও সামাজিক মাধ্যমে দাবি করা হয়, চীন সরকার সীমান্ত পেরিয়ে ভুটানের অভ্যন্তরে প্যাংদা নামে একটি গ্রাম বানিয়েছে। এই সংবাদ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।

খবর কলকাতা টোয়েন্টিফোরের। ভুটান সরকার জানিয়েছে, ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি অনুযায়ী এমন কোনও ঘটনা ঘটেনি। ভুটানের রাষ্ট্রদূত ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি টুইট থেকে এই খবর ছড়িয়েছে। এই তথ্যকে গুরুত্ব দিতে চাইছে না থিম্পু।

সেই টুইটে এক চিনা সাংবাদিক দাবি করেন ভুটানের মধ্যে ২ কিলোমিটার জুড়ে চীনা গ্রামের অস্তিত্ব। আসলে এই গ্রাম সম্পর্কে পুরো তথ্যই ভুয়ো।

ভুটান সরকারের দাবি, চীনের সংবাদমাধ্যম সিটিজিএন এর সাংবাদিক শেন শিউই টুইটে ভুটানি ভূখণ্ডে চীনের প্যাংদা গ্রাম তৈরির কথা লেখেন। কিছু ছবি প্রকাশ করেন। সেই টুইটকে ভিত্তি করে বিভিন্ন ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ও সংবাদপত্রে লেখা হয় খবর।

ওই চীনা সাংবাদিক শেন শিউইয়ের টুইট থেকে ধারণা করা হয়, ভারত, চীন ও ভুটানের ত্রিদেশীয় সীমান্তের বিতর্কিত ডোকলাম এলাকার খুব কাছেই প্যাংদা নামে গ্রাম বানিয়েছে চীন সরকার। সেই গ্রামটি ভুটানি সীমান্তের ২ কিলোমিটার ভিতরে। আর বিতর্কিত ডোকলাম থেকে ৯ কিলোমিটার দূরে। উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে চীনের সেনা সীমান্ত পেরিয়ে ভারত ও ভুটানের মাঝে বিতর্কিত ডোকলাম এলাকায় ঢুকেছিল।

LEAVE A REPLY