সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত ফটোগ্রাফার লুৎফর রহমান বীনুর মৃত্যুতে তারেক রহমান-মীর্জা ফখরুলের শোক

আপডেট: জুলাই ২৬, ২০২১
0

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান আজ এক শোকবার্তায় সিনিয়র ফটো সাংবাদিক, জাতীয় প্রেসক্লাবের সদস্য, সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার প্রাক্তন ব্যক্তিগত ফটোগ্রাফার লুৎফর রহমান বীনু’র ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

সাংগঠনিক সম্পাদক-বিএনপি ও বিএনপি কেন্দ্রীয় দফতরের চলতি দায়িত্বে সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তিনি এ শোক বার্তা প্রকাশ করেন।

আজ এক শোকবার্তায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বলেন-“লুৎফর রহমান বীনু বাংলাদেশের একজন খ্যাতিমান ফটো সাংবাদিক ছিলেন। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন গণমাধ্যমে সুনামের সাথে তিনি আলোকচিত্রের মাধ্যমে বিভিন্ন বিষয় ও ঘটনা প্রবাহ বিবৃত ও মূর্তমান করেছেন। বাংলাদেশের রাজনীতি, সমাজ, প্রকৃতি, ঘটনা-দুর্ঘটনা ইত্যাদি তিনি তাঁর তোলা ছবির মাধ্যমে দেশ-বিদেশে তুলে ধরেছেন।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত ফটোগ্রাফার থাকাকালীন সময়ে লুৎফর রহমান বীনু দেশনেত্রীর রাজনৈতিক ও রাষ্ট্রীয় কার্যক্রম ক্যামেরার ফ্রেমে ধারণ করে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে তুলে ধরেছেন এবং জনগণকে প্রেরণা যুগিয়েছেন। এছাড়া, বাংলাদেশের ফটো সাংবাদিকতায় ও তিনি অগ্রণী ভুমিকা পালন করেছেন।”
শোকবার্তায় বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জনাব তারেক রহমান মরহুম লুৎফর রহমান বীনু’র আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারবর্গ ও সহকর্মীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

পৃথক শোকবার্তায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার প্রাক্তন ‘ব্যক্তিগত ফটোগ্রাফার’ লুৎফর রহমান বীনুর ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।
আজ এক শোকবার্তায় বিএনপি মহাসচিব বলেন, “একজন সিনিয়র ফটো সাংবাদিক হিসেবে লুৎফর রহমান বীনু কালের সাক্ষী ছিলেন। রাষ্ট্রীয় ও আন্তর্জাতিক এবং রাজনৈতিক, সামাজিক ঐতিহাসিক ঘটনা-দূর্ঘটনা ক্যামেরাবন্দী করে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে উপস্থাপন করেছেন। প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন সময়ে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার ‘ব্যক্তিগত ফটোগ্রাফার’ ছিলেন তিনি। সেই সময়ে এবং পরবর্তীকালেও দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার কর্মকান্ড আলোকচিত্রের মাধ্যমে তুলে ধরেছেন। ফটো সাংবাদিকতার আধুনিকায়ন ও বিকাশে তিনি দেশে-বিদেশে কাজ করেছেন নিরলসভাবে। তিনি তাঁর কর্মে সৃজনশীলতা এবং দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন এবং ফটো সাংবাদিকতার মূল্যবোধ ও শিষ্টাচার বজায় রেখেছেন। ঝুঁকি নিয়ে সততা, বুদ্ধিমত্তা ও সাহসিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন। তাঁর মৃত্যুতে ফটো সাংবাদিকতা জগতে যে শুণ্যতা সৃষ্টি হলো তা সহজে পূরন হবে না।”
শোকবার্তায় বিএনপি মহাসচিব মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং পরিবার-পরিজনের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান