হাইপারটেনশন বা উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় যা খাবেন

আপডেট: মে ৮, ২০২২
0

হাইপারটেনশন বা উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ইদানিং বহু মানুষ ভোগেন।

ডায়াবেটিসের মতো ভারতে উচ্চ রক্তচাপের রোগীর সংখ্যাও দিনের পর দিন বাড়ছে। ভুল খাদ্যাভ্যাস, অতিরিক্ত স্ট্রেস, টেনশন, শরীরচর্চার অভাব, এগুলোও উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা আরও বাড়িয়ে দেয় বলে মত বিশেষজ্ঞদের। তাই নিয়মিত সুনির্দিষ্ট খাদ্যাভ্যাসের দিকে বিশেষ নজর দিতে বলছেন তাঁরা। চিকিৎসকদের পরামর্শ মেনে নির্দিষ্ট ওষুধ খাওয়ার পাশাপাশি জীবনধারাতেও পরিবর্তন আনা উচিত।

এমন কিছু ভারতীয় খাবার রয়েছে, যা রোজের পাতে রাখলে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকবে। রক্তচাপের সমস্যা দূর করতে ওজন কমানোর পরামর্শও দেন চিকিৎসকরা। এই খাবারগুলো দ্রুত ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। সেগুলো কী কী?

১. আটা বা ময়দার রুটির বদলে বেছে নিন জোয়ারের রুটি। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ফাইবার, প্রোটিন, মিনারেলে ভরপুর জোয়ারের রুটি। যা উচ্চ রক্তচাপের রোগীদের জন্য ভীষণ উপকারী।

২. শশার রায়তা বানিয়ে রোজ খান। বিশেষত গরমের হাত থেকে রেহাই মিলবে। তাছাড়াও শরীর ঠান্ডা থাকবে। ডিহাইড্রেশনের সমস্যা কমবে। হাইপারটেনশনের সমস্যা কমাতেও এর জুরি মেলা ভার।

৩. দই ভেন্ডি, যতটা সুস্বাদু খেতে, ততটাই উপকারী উচ্চ রক্তচাপের জন্য। মাত্র ৩০ মিনিটের মধ্যেই এটি বানিয়ে ফেলতে পারবেন। ভেন্ডির এমন বহু পুষ্টিগুণ রয়েছে যা উচ্চ রক্তচাপের জন্য উপকারী। তবে রান্নার সময় সামান্য তেল ব্যবহার করার পরামর্শ দিচ্ছেন। বিশেষজ্ঞরা।

৪. মুগের ডালের মধ্যে রয়েছে ফাইবার, পটাশিয়াম, আয়রন। এই ডাল বেটে, তার মধ্যেই পেঁয়াজ, লঙ্কা দিয়ে প্যানকেকের মতো বানিয়ে ব্রেকফাস্টে খেতে পারেন।

৫. রাজমা স্যালাড উচ্চ রক্তচাপের জন্য খুব উপকারী। সেদ্ধ রাজমা, সঙ্গে পেঁয়াজ, টমেটো, স্প্রিং ওয়িওন, আখরোট, বাদাম, সামান্য ব্ল্যাক পেপার, নুন, লেবুর রস দিয়ে রাজমা স্যালাড বানিয়ে ফেলুন। সকালে হোক বা দুপুরে, যেকোনও সময় খেলেই উপকার পাবেন।