হাসপাতাল ছাড়লেন কবি হেলাল হাফিজ

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৫, ২০২২
0

গুরুতর অসুস্থ কবি হেলাল হাফিজকে রাজধানীর বারডেম হাসপাতালে ভর্তির পর একাকী তিন রাত চিকিৎসাধীন থেকে পুরোপুরি সুস্থ না হয়েই হাসপাতাল ছেড়েছেন তিনি।

দীর্ঘদিন ধরে গ্লুকোমায় আক্রান্ত তিনি। পাশাপাশি ভুগছেন কিডনি, ডায়াবেটিস ও স্নায়ুজনিত জটিলতায়।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কবি হেলাল হাফিজকে গত ১ সেপ্টেম্বর (বৃহস্পতিবার) বারডেম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি হাসপাতালের ৮৪১ নম্বর কেবিনে ভর্তি ছিলেন। গতকাল রোববার (৪ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৪টার দিকে কবি হেলাল হাফিজ হাসপাতাল ছাড়েন। তবে এখনো তিনি পুরোপুরি সুস্থ নন।

জানা গেছে, একজন নারী পাঠক কবিকে হাসপাতালে নিয়ে এলেও তাকে সার্বক্ষণিক দেখাশোনা করার মতো কেউ ছিল না। হাসপাতালে কবিকে সেবা দিয়েছেন কর্মরত নার্সরা। তাদের সেবায় খুশি হয়ে কবি হাসপাতাল ছাড়ার সময় নিজের হাতে তৈরি একটি উপহারও তাদের দিয়ে গেছেন।

এসব প্রসঙ্গে কবি হেলাল হাফিজ গণমাধ্যমকে জানান, ‘হাসপাতালে থাকতে আর ভালো লাগছিল না, তাই চলে এসেছি। আসার সময় চিকিৎসকরা ওষুধপত্র বুঝিয়ে দিয়েছেন। আমি এখনো পুরোপুরি সুস্থ হইনি। আমার জন্য দোয়া করবেন।’

এর আগে শারীরিক অবস্থা খারাপ হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে তাকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে দেড় মাস চিকিৎসা নিয়ে হোটেলে ফেরার পর আবারো হঠাৎ করে সুগার ফেল করে। পরে পরিচিতজনরা তাকে বারডেম হাসপাতালে নিয়ে আসেন। এর আগে তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়েও চিকিৎসা নিয়েছেন।

কবি হেলাল হাফিজ সাহিত্যে ২০১৩ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার পান। তার আগে খালেকদাদ চৌধুরী পুরস্কারসহ নানা সম্মাননা পেয়েছেন তিনি।