‘Mainstreaming SDGs for the Ministry of Industries’ শীর্ষক বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৫, ২০২১
0

ঢাকা, ২১ ভাদ্র (০৫ সেপ্টেম্বর):

জাতির পিতার স্বপ্নের ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত ও উন্নত-সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণে ২০৪১ সালের মধ্যে যে টার্গেট তা ২০৩০ সালের মধ্যেই এসডিজি বাস্তবায়নে বিপুল জনসংখ্যার এই দেশে যে শ্রমিক আছে, তা কাজে লাগাতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক মুখ্য সচিব জুয়েনা আজিজ। তিনি বলেন, এসডিজি বিষয়ে শিল্প মন্ত্রণালয়ের এই প্রকাশনা সত্যিই প্রশংসার যোগ্য। এসডিজি উন্নয়নে মন্ত্রণালয়ের সঠিক প্লানিং অনুযায়ী লোকালী যেসব এলাকা পিছিয়ে আছে তা চিহ্নিত করে সবাই মিলে কাজ করতে হবে।

শিল্প সচিব জাকিয়া সুলতানার সভাপতিত্বে ‘Mainstreaming SDGs for the Ministry of Industries’ শিরোনামে প্রকাশিত বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠিত হয়। শিল্প মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আজ এ অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। এতে শিল্প মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কমকর্তা এবং দপ্তর/সংস্থার প্রধানগণ উপস্থিত ছিলেন।

সভাপতির বক্তব্যে শিল্প সচিব বলেন, ২০১৬-২০৩০ এই সময়ে এসডিজি বাস্তবায়নে মোট ১৭টি অভিষ্ট লক্ষ্য, ১৬৯টি টার্গেট এবং ২৩২টি নির্দেশক নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। শিল্প মন্ত্রণালয়ে জাতীয় অগ্রাধিকারপ্রাপ্ত মোট ৩৯টি টার্গেটের মধ্যে ২টি টার্গেটের একটি হচ্ছে শিল্প ক্ষেত্রে কর্মসংস্থান ২৫% এবং আরেকটি হচ্ছে জিডিপিতে শিল্পখাতের অবদান ৩৫% এ উন্নীত করার লক্ষ্যে কাজ করছে। বাংলাদেশে প্রথমবারের মত প্রকাশিত এসডিজি বিষয়ক প্রকাশনা শিল্প মন্ত্রণালয় সম্পাদন করে। এতে এসডিজি’র সাথে মন্ত্রণালয়ের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (API) ও নির্বাচনী ইশতেহার ২০১৮ এর বিষয়গুলো সামিল করা হয়েছে। এসডিজি সংক্রান্ত শিল্প মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রকাশিত বইটি বাংলাদেশের টেকসই শিল্পায়নে সকল অংশীজনের জন্য একটি গাইডলাইন হিসেবে কাজ করবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক মুখ্য সচিব জুয়েনা আজিজ আনুষ্ঠানিকভাবে ‘Mainstreaming SDGs for the Ministry of Industries’ শিরোনামে বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন। এর আগে তিনি শিল্প মন্ত্রণালয়ের বঙ্গবন্ধু কর্ণার পরিদর্শন করেন।