`ধর্ষণ বন্ধে সরকারকে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহন করতে হবে’

আপডেট: জুন ১৮, ২০২০
0

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সম্প্রতি করোনাভাইরাসে সৃষ্ট সংকটের মধ্যেও দেশে ধর্ষণ বেড়ে গেছে। আইনের যথাযথ প্রয়োগ আর সামাজিক অবক্ষয়ের কারনেই দিন দিন ধর্ষনের পরিমান বাড়ছে বলে অভিমত ব্যক্ত করেছেন কেন্দ্রীয় মহিলা দল সদস্য শামীমা রাহীম।

এজন্য ধর্ষন বন্ধে সরকারকে আরো কঠোর হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। দেশজনতা ডটকমকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে এসব কথা বলেন সামিমা।

সাক্ষাতাকারে শামীমা রাহীম বলেন, সস্প্রতি দেশে নারী নির্যাতন ও ধর্ষনের মতো জগন্য অপরাধ বেড়েই চলছে, এর প্রথম ও প্রধান কারন হচ্ছে আইনের শাসনের অভাব অথবা আইন আছে কিন্ত প্রয়োগ নেই।

তিনি আরো বলেন, আমরা এ পর্যন্ত বহুবার দেখেছি ধর্ষনের মতো জগন্যতম অপরাধের বিচারও প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ করতে হয় ।

অনেক সময় অপরাধীকে গ্রেফতার করা হয়না। তাই এ অপরাধ থেকে পরিত্রাণ পেতে হলে অপরাধী যেই হোক না কেন তাকে দ্রুততম সময়ের মধ্যে শাস্তির আওতায় আনতে হবে। তাহলেই আর কেউ এই অপরাধ করতে সাহস পাবেনা। এছাড়াও ধর্ষণ বন্ধে সরকারকে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহন করতে হবে।

করোনায় দেশের রাজনীতি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, রাজনীতির মূল লক্ষ্য হলো মানব কল্যান । কিন্তু সম্প্রতি করোনার এ মহামারীর মধ্যেও দেশে প্রতিহিংসার রাজনীতি চলছে। সংকটময় এই মূহুর্তে রাজনৈতিক নেতাদের দায়িত্ব মানুষের খাবার এবং চিকিৎসা নিশ্চিত করা।

যুক্তরাজ্য প্রবাসী শামীমা রাহীম বলেন, করোনা নিয়ে সৃষ্ট এই কঠিন পরিস্থিতির মধ্যেও দেশের বাহিরে থেকে আমি ব্যক্তিগত উদ্যোগে বাংলাদেশে আমার এলাকা দোহারের বিভিন্ন অঞ্চলে নেতা কর্মীদের মাধ্যমে দরিদ্র পরিবারের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরনসহ স্বাস্থ্য সচেতনামূলক বিভিন্ন কর্মসূচিতে পরিচালনা ও আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছি।

এমনকি স্কটল্যান্ডের বিভিন্ন হাসপাতালে স্বাস্থ্যকর্মীদের মাঝে খাবার সরবরাহ করেছি, বিপদে মানুষের পাশে থাকতে পরলে আমার ভালই লাগে।

LEAVE A REPLY